বাসুদেব ঘোষ, বোলপুর: বিশ্বভারতী কলাভবনের শতবর্ষ উপলক্ষে নন্দন মেলায় এবার বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ ২৯শে নভেম্বর অর্থাৎ আজ থেকে শুরু হচ্ছে কলা ভবনের নন্দন মেলা৷ অনুষ্ঠান ঘিরে ইতিমধ্যেই জোরকদমে চলছে প্রস্তুতির কাজ৷ বুধবার মেলার প্রস্তুতি পর্ব ঘুরে দেখেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী৷

বিশ্বভারতী সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৯১৮ সালের ২৩ শে ডিসেম্বর প্রতিষ্ঠিত হয় কলা ভবন৷ ঠিক তার পরের বছর ৩রা জুন থেকে এখানে কলা ও সঙ্গীত চর্চা শুরু হয়। এই ভবনে খ্যাতি সারা বিশ্বজুড়ে৷ এই ভবনের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে প্রখ্যাত শিল্পী নন্দলাল বসু, যোগেন চৌধুরির মতো ব্যক্তিত্বরা৷

শতবর্ষ উপলক্ষে সেজে উঠেছে কলা ভবন চত্বর৷ ভবনের কালো বাড়ির সামনে চলছে অনুষ্ঠানের মঞ্চসজ্জার কাজ৷ পড়ুয়া-শিল্পীরা ব্যস্ত তাদের শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতিতে৷ কলা ভবনের অধ্যাপক দিলীপ মিত্র জানান, শতবর্ষ উদযাপনে থাকছে বিশেষ কিছু ব্যবস্থা৷ এবছর মেলার কলেবর বাড়ানো হয়েছে৷ ২৯ শে নভেম্বর বৈতালিক এর মধ্য দিয়ে শুরু হবে অনুষ্ঠান৷

প্রিয়াঙ্কা শীল নামে এক ছাত্রীর কথায়, এক সপ্তাহ আগে থেকে নন্দন মেলার প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায়৷ কলা ভবনের এ বছর শতবর্ষ পূর্ণ তাই অন্য বারের থেকে বিশেষ কিছু চমক এ বছর রয়েছে৷ আমাদের বিশ্বভারতীর পড়ুয়ারা মূলত নিজেরাই বিভিন্ন চিত্র প্রদর্শনী এবং হাতের কাজের মাধ্যমে নন্দন মেলাকে ফুটিয়ে তোলে৷ আমরা এই দিনটার জন্য সবাই অনেকদিন ধরে অপেক্ষা করছি৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।