ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পরে এবার প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের বাংলাদেশ সফর বাতিল হল৷
বাংলাদেশে করোনাভাইরাস রোগী চিহ্নিত হয়েছে তিন জন। তাকপরেই বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ ১৭ মার্চ মুজিব বর্ষের অনুষ্ঠানে কাটছাঁট করা হয়৷

সূত্রের খবর, বুধবার অধ্যক্ষ শিরীন শারমিন চৌধুরীর নেতৃত্বে এক উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হয়৷ সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আগামী ২২ মার্চ থেকে ২ দিনের জন্য সংসদের বিশেষ অধিবেশন বসলেও বিদেশি অতিথিদের আমন্ত্রণ স্থগিত রাখা হবে৷ ওই অধিবেশনে বিশেষ অতিথি হিসেবে যোগ দেওয়ার জন্য ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের পাশাপাশি নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভাণ্ডারীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল৷ জানা গিয়েছে তাঁদের সফর বাতিল হয়েছে৷ এমনকি ১৭ মার্চের অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও আসছেন না৷

এদিকে করোনা ভাইরাস সংক্রামিত রোগী বাংলাদেশে চিহ্নিত হওয়ার পর তড়িঘড়ি তাদের পৃথক চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সরকার জানিয়েছে, অযথা আতঙ্কের কারণ নেই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সরকার সক্ষম।

এরই মাঝে বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুদিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষ পালন অনুষ্ঠান নিয়ে সরকার চিন্তিত হয়। ঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে যান বিদেশমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। বৈঠক শেষে মুজিব বর্ষে আমন্ত্রিত ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদী সহ অন্যান্য অতিথিরা আসছেন না বলে জানানো হল।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিততে উচ্চ পর্যায়ের একটি বৈঠক হয়৷ সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, সংসদের বিশেষ অধিবেশন পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী বসবে৷ ২২ মার্চ সকাল ১১টায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের ভাষণ দিয়ে শুরু হবে বিশেষ অধিবেশন৷ সংসদের সদস্যরা বঙ্গবন্ধুর বর্ণময় জীবনের উপরে দু’দিন ধরে আলোচনা করবেন৷

তবে জান গিয়েছে, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ভিডিও বার্তার মধ্য দিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উপস্থিতি থাকছে৷