নয়াদিল্লি: বয়স্ক ব্যাক্তিদের জন্য দারুণ প্ল্যান রয়েছে মোদী সরকারের। যার থেকে মাস প্রতি পেনশন মিলতে পারে ১০,০০০ টাকা। ২০১৮-১৯ সালের ইউনিয়ন বাজেটে উল্লিখিত রয়েছে এই যোজনার কথা। অবশ্য ২০১৭-১৮ সালের ইউনিয়ন বাজেটেও প্রধানমন্ত্রী বায়োবন্দনা যোজনা নামে এই প্রকল্পের কথা উল্লেখ ছিল।

বাজেটের বক্তব্য অনুযায়ী, এই প্রকল্পের অধীনে সব থেকে বেশি ১৫ লক্ষ টাকা লগ্নি করতে পারবেন সিনিয়র সিটিজেন ব্যক্তি। পাশাপাশি এই প্রকল্পে মেয়াদ বাড়িয়ে মার্চের ৩১ তারিখ করা হয়েছে।

বর্তমানে এই পলিসির মেয়াদ রয়েছে ১০ বছর। এই পলিসিতে সর্বনিম্ন মাস প্রতি পেনশন পাওয়া যাবে ১০০০, তিনমাসে ৩০০০ ও একবছরে ১২,০০০ টাকা। অন্যদিকে যদি সবচেয়ে বেশি পেনশন পাওয়া যায়, সেক্ষেত্রে এই যোজনায় মাস প্রতি ১০,০০০ টাকা পাবেন বয়স্ক ব্যাক্তি। যা কিনা বছরে মিলবে ১২,০০০ টাকা।

অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ কদিন আগেই ঘোষণা করেন, যে এই প্রকল্পে আধার বাধ্যতামূলক। এই আধার দিয়ে প্রমাণ করতে হবে সিনিয়ার সিটিজেনদের বয়স। এব্যাপারে সুবিধা পেতে আধার তালিকাভুক্ত করা হলে আধার তালিকাভুক্তি সনাক্তকরণ স্লিপ দেখাতে হবে এবং নীচের যে কোনও একটি ডকুমেন্ট দেখাতে হবে। সেই ডকুমেন্টগুলি হল – ১) ফোটোসহ ব্যাংকের পাসবুক ২) ভোটার কার্ড ৩) রেশন কার্ড ৪)প্যান কার্ড ৫) ড্রাইভিং লাইসেন্স ৬)পাসপোর্ট ৭) কিষাণ ফটো পাসবুক।

জানা গিয়েছে, এলআইসি দ্বারা পরিচালিত হবে এই পেনশন প্রকল্পটি। যাদের আধার কার্ড এখনও নেই, তাঁরা যদি এই প্রকল্পটির সুবিধা নিতে চান, তাহলে অবশ্যই আগে আধার কার্ডের জন্য আবেদন করতে হবে। পেনশনের টাকা সরাসরি গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে ঢুকবে।