লন্ডন: করোনা গ্রাসে স্থগিত হয়ে যাওয়া আইপিএলে ইংল্যান্ডের মাটিতে শেষ করার জোরাল সওয়াল করলেন প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক কেভিন পিটারসেন৷ পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে আইসিসি ও অন্যান্য বোর্ডের সঙ্গে কথা বলে ওপেন উইন্ডো দেখে আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলি করার কথা ভাবচ্ছে বিসিসিআই৷ বোর্ডের রেডারে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর পাশাপাশি অবশিষ্ট আইপিএলের ভেন্যু হিসেবে রয়েছে ইংল্যান্ডও৷

দেশের ক্রমবর্ধমান কোভিড পরিস্থিতি এবং একাধিক ফ্র্যাঞ্চাইজি শিবিরে কোভিড হানা দেওয়ার পর ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড মঙ্গলবারই আইপিএলের চতুর্দশ সংস্করণ অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ তবে বাকি ম্যাচগুলি কোথায় ও কবে করা অনুষ্ঠিত করা যায় তা নিয়ে ইতিমধ্যেই ভাবনাচিন্তা শুরু করে দিয়েছে বিসিসিআই, আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল ও সম্প্রচারকারি চ্যানেল৷

সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে অর্থাৎ টি-২০ বিশ্বকাপের ঠিক আগে আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলি অনুষ্ঠিত করতে চাইছে বিসিসিআই৷ তবে তা দেশের মাটিতে নয়, বিদেশে করার ভাবনা রয়েছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বোর্ডের৷ প্রাক্তন ইংল্যান্ড ক্যাপ্টেন পিটারসেন মনে করে বিসিসিআই-এর উচিত আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলি সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ডের মাটিতে করা উচিত৷ কেপি’র মতে, সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ডের মাটিতে আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলি আয়োজন করা সেরা সিদ্ধান্ত হবে৷

পিটারসেন বিটওয়ে-তে নিজের কলামে লিখেছেন, ‘আমাকে অনেকেই জিজ্ঞেস করছিল সেপ্টেম্বরে আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলি সংযুক্ত আমিরশাহীতে করা ঠিক হবে কি না, কিন্তু আমি বলল আইপএল হওয়া উচিত ইংল্যান্ডে৷ সেপ্টেম্বরে ভারত-ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজের পর যে ওপেন উইন্ডো থাকতে সে সময় আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলি ইংল্যান্ডে হওয়া উচিত৷ কারণ সে সময় ভারতের সেরা খেলোয়াড়রা ইংল্যান্ডেই থাকবে৷ পাশাপাশি ইংল্যান্ড প্লেয়ারদের পাওয়াতেও কোনও সমস্যা হবে না৷’

চল্লিশ বছরের প্রাক্তন ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান আরও লিখেছেন, ‘সেপ্টেম্বরে মাঝামাঝি সময়টা ইংল্যান্ডে দারুণ আবহাওয়া থাকে৷ সে সময় ম্যাঞ্চেস্টার, লিডস, বার্মিহ্যাম এবং লন্ডনে দু’টো মাঠ রয়েছে৷ সে সময় মাঠে দর্শকদের প্রবেশের অনুমতিও পাওয়া সম্ভব৷ এর আগে আইপিএল আমিরশাহী এবং দক্ষিণ আফ্রিকাতে হয়েছে৷ কিন্তু আমি মনে করি, ২০২১ আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলি করার জন্য আর্দশ জায়গা হল ইংল্যান্ড৷’

অগস্ট ও সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ডে পাঁচ টেস্টের সিরিজ খেলবে ভারত৷ সিরিজ শুরু হচ্ছে ৪ অগস্ট৷ আর শেষ হচ্ছে ১৪ সেপ্টেম্বর৷ তারপরই আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলি হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে৷ ইতিমধ্যেই ইংল্যান্ডের চারটি কাউন্টি ক্লাব আইপিএলে বাকি ৩১টি ম্যাচে আয়োজনের ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে৷ এই চারটি কাউন্টি ক্লাব হল মিডলসেক্স, সারে, ওয়ারইয়র্কশায়ার এবং ল্যাঙ্কাশায়ার৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.