কলকাতা: অমর্ত্য সেনের ছবি দিয়ে বিশেষ পোস্টার পড়ল কলকাতার রাস্তায়। আর সেই ব্যানারে লেখা, জয় শ্রী রাম সম্পর্কে তাঁর করা মন্তব্য। তবে এর পিছনে কারা, কোনও রাজনেতিক দল নাকি অরাজনৈতিক কোনও সংগঠন, তা স্পষ্ট নয়।

‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান নিয়ে নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন সম্প্রতি বিশেষ মন্তব্য করেন। তিনি বলেছিলেন, ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনির সঙ্গে বাংলার সংস্কৃতির কোনও সম্পর্ক নেই।

উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতার বেশকিছু এলাকার রাস্তার দু-ধারে ওই নীল রঙের উপর সাদা দিয়ে লেখা ওই ফ্লেক্স। একপাশে রয়েছে অমর্ত্য সেনের ছবি। তার পাশে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান নিয়ে তাঁর করা মন্তব্য লেখা রয়েছে। চার-পাঁচ লাইনের ওই বক্তব্য শেষে ফ্লেক্সের নিচে অমর্ত্য সেনের নামও লেখা রয়েছে। আর তার নিচে লেখা, নাগরিকদের পক্ষ থেকে প্রচারিত।

এই প্রসঙ্গে তৃণমূল আর বিজেপি একে অপরের উপর দোষ চাপাচ্ছে। তৃণমূলের দাবি, নাগরিক সমাজের নামে শহরের বুদ্ধিজীবীরা এই কাজ করেছেন। অন্যদিকে বিজেপি কিন্তু এই ফ্লেক্স লাগানোর জন্য তৃণমূলকেই দায়ী করেছে।

বাবুল সুপ্রিয় ট্যুইট করে লিখেছেন, ‘এটাই তৃণমূলের রাজনীতি। আপনাদের নিশ্চয় মনে আছে লোকসভা নির্বাচনের আগে আসানসোলে চৌকিদার চোর হ্যায় লেখা পোস্টার পড়েছিল। আমি সেই পোস্টার ছিঁড়ে জ্বালিয়ে দিয়েছিলাম।’ এইভাবেই তৃণমূলের দিকেই আঙুল তুলেছেন বাবুল।

উল্লেখ্য, গত ৫ জুলাই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যাবয়ের এক অনুষ্ঠানে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান ও রাম নবমী নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, দুটিই বাংলার সংস্কৃতির সঙ্গে বেমানান। সাম্প্রতিক কালে এই স্লোগান মানুষ মারধর করতে ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও দাবি করেন নোবেল জয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ।

বলেন, বাংলায় ‘জয় শ্রী রাম’ থেকে ‘মা দুর্গা’ স্লোগান অধিক প্রচলিত। এমন মন্তব্যের পর বিজেপির তীব্র কটাক্ষের মুখে পড়েন অমর্ত্য সেন। দেশের প্রতি তাঁর কী অবদান আছে, প্রশ্ন তোলে গেরুয়া শিবির। তা নিয়ে রাজ্যের রাজনৈতিক মহল সরগরম হয়।