আমেদাবাদ : জেলায় গোধরা-পরবর্তী সংঘর্ষের ঘটনায় অভিযুক্ত ২৮ জনকেই মুক্তি দিল আদালত। প্রমাণের অভাবেই তাঁদের রেহাই দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কলোল কোর্ট।

 
২০০২ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি গুজরাতের গান্ধীনগরের কলোল তালুকার পলিয়াদ গ্রামে মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের উপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ ওঠে। সংখ্যালঘু ওই মানুষদের ঘড়বাড়ি ভেঙে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ ছিল ওই ২৮ জনের বিরুদ্ধে। এমন হিংসাত্মক ঘটানোর পাশাপাশি একটি ধর্মস্থানেও হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে ২৫০ জনের বিরুদ্ধে।

 

পরবর্তীকালে এদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে পুলিশ। কিন্তু ৩১ জানুয়ারি কলোলের অতিরিক্ত জেলা বিচারপতি বিডি পটেল তাঁর রায়ে বলেন, সাক্ষীরা আদালতে বলেছেন, হিংসার ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করতে পারছেন না। প্রমাণের অভাবেই অভিযুক্তদের রেহাই দেওয়া হচ্ছে।