দেবময় ঘোষ, কলকাতা: রাজ্যের চার প্রার্থী তালিকা নিয়ে রীতিমতো দিশেহারা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷ পশ্চিমবঙ্গ থেকে চারটি প্রার্থী তালিকার কোন নামগুলি বেছে নেওয়া হবে তা নিয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্ব কাটছে না৷ বিজেপির সংসদীয় বোর্ড বুধবার পশ্চিমবঙ্গের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন৷ বৈঠক যে আগেও হয়নি – এমন নয়৷ কিন্তু সমাধান সূত্র পাওয়া যায়নি৷

প্রা্থী তালিকা ঘোষণা নিয়ে মুকুল রায়, দিলীপ ঘোষ শিবিরের চরম মতপার্থক্য রয়েছে৷ অন্যদিকে বিস্তারকরা সারা রাজ্য ঘুরে একটি রিপোর্ট দিয়েছে৷ সেই রিপোর্টে যে সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকা দেওয়া হয়েছে তাও আলোচনার মধ্যে রাখতে হচ্ছে৷ এছাড়া অমিত শাহ নিজে বিজেপির যে কেন্দ্রীয় দলকে রাজ্যের ৪২টি লোকসভা কেন্দ্রে পর্যবেক্ষণ করতে বলেছেন – তারাও একটি আলাদা রিপোর্ট দিয়েছে৷ সেই রিপোর্টটিও পর্যবেক্ষণের অন্যতম বিষয়বস্তু৷

এদিকে ১৮ মার্চ প্রথম দফার নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র গ্রহণ শুরু হয়েছে৷ সোমবার (২৫ মার্চ ) মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন৷ রাজ্য বিজেপি সূত্রে যা খবর, শুক্রবার বেলা ১১টায় দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতর থেকে বিজেপি প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করা হবে৷ রাজ্যের ৪২টি লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থীদের নাম একযোগে ঘোষণা করা হতে পারে বলেই খবর৷

শেষ মুহূর্তে কোনও পরিবর্তন না হলে এখনও পর্যন্ত যা প্রায় ঠিক হয়ে গিয়েছে-

১. মেদিনীপুরের প্রার্থী – দিলীপ ঘোষ

২. বারাসত লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন – সায়ন্তন বসু

৩. দমদমের প্রার্থী – শমিক ভট্টাচার্য

৪. যাদবপুরের প্রার্থী – অনুপম হাজরা

৫. উত্তর কলকাতার প্রার্থী – রাহুল সিনহা

৬. দক্ষিণ কলকাতার প্রার্থী – সম্ভবত অগ্নীমিত্রা পাল

৭. ডায়মন্ড হারবারের প্রার্থী – আলি হাসান অথবা শঙ্কুদেব পণ্ডা

৮. বারাকপুরের প্রার্থী – অর্জুন সিং

৯. রাণাঘাটের প্রার্থী – অর্চনা মজুমদার

১০. বিষ্ণুপুরের প্রার্থী – সৌমিত্র খাঁ

১১. বীরভূমের প্রার্থী – লকেট চট্টোপাধ্যায়

১২. আসানসোলের প্রার্থী – বাবুল সুপ্রিয়

১৩. ঘাটালের প্রার্থী ভারতী ঘোষ

১৪. পুরুলিয়ার প্রার্থী নরহরি মাহাতো

রাজ্য বিজেপির প্রার্থী তালিকা নিয়ে জল্পনার অন্ত নেই৷ রাজ্য পার্টির অন্দরে বিধাননগরে তৃণমূল কংগ্রেসের মেয়র সব্যসাচী দত্তকে নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়েছিল৷ কিন্তু বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত যা খবর, প্রার্থী তালিকায় নাম থাকছে না সব্যসাচী দত্তর৷ বোলপুরের সাংসদ অনুপম হাজরাকে যাদবপুরে টেনে আনাও বিজেপির প্রার্থী তালিকার অন্যতম চমক হতে পারে৷ তৃণমূল কংগ্রেস অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে যাদবপুরে প্রার্থী করেছেন৷ সিপিএম প্রার্থী করেছে পোড়খাওয়া রাজনৈতিক কর্মী এবং আইনজ্ঞ বিকাশ ভট্টাচার্যকে৷ সেক্ষেত্রে পেশায় অধ্যাপক অনুপমকে যাদবপুরে দাঁড় করিয়ে মাস্টারস্ট্রোক দিতে পারে অমিত শাহ৷ দুই হেভিওয়েট প্রার্থীর পাশে দাঁড়ায়ে হাল্কা মনে হতে পারে মিমির প্রার্থীপদ৷ উত্তর কলকাতায় রাজ্য থেকে বিজেপির জাতীয় সম্পাদক রাহুল সিনহার প্রার্থী হওয়া প্রায় নিশ্চিত হলেও দক্ষিণ কলকাতা নিয়ে এখনও সিদ্ধান্তে পৌছাতে পারেনি বিজেপি সংসদীয় বোর্ড৷ তবে ফ্যাশন ডিজাইনার অগ্নীমিত্রা পালের নাম রয়েছে আলোচনায়৷ মেদিনীপুর থেকে নির্বাচনে লড়াই করবেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷

রাজ্য বিজেপি সূত্রে একথা শোনা গিয়েছে অন্তত, ৩০টি আসনের ক্ষেত্রে বিজেপি নেতৃত্ব এখন ঐক্যতম হতে পারেনি৷ নির্বাচনের আগে পশ্চিমবঙ্গে পার্টি কর্মীদের অসন্তোষ আটকাতে সাবধানে পা ফেলছে বিজেপি৷