স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: শেষ হল জলপাইগুড়ির ১০৮ তম গোপাষ্টমী মেলা। জলপাইগুড়ির পাহাড়পুর এলাকার গ্রাম পঞ্চায়েতের গোশালায় প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে প্রাচীন এই গোপাষ্টমী মেলা। জানা গিয়েছে, হাজার হাজার মানুষের ভিড়ে সকাল থেকেই জমজমাট হয়ে ওঠে গোটা মেলা প্রাঙ্গন।

মাড়োয়ারি সম্প্রদায় পরিচালিত জলপাইগুড়ির গোশালায় বর্তমানে প্রায় আড়াইশো গরু রয়েছে। আনুষ্ঠানিক ভাবে পুজো দেওয়া হয় এই গোরুগুলিকে। এই উপলক্ষেই আয়োজিত এই মেলার অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, রক্তদান শিবির, ফ্রিতে চোখ পরীক্ষার আয়োজন করেন উদ্যোক্তারা।

পাশাপাশি মেলায় হরেক রকমের দোকান বসে। এছাড়াও মেলায় আগত মানুষের জন্য থাকে স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন ক্যাম্প ও অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা। তবে এই মেলার প্রধান আকর্ষন কুস্তি খেলা বলে জানা গিয়েছে। গত একশো বছরেরও বেশি সময় ধরে এখানে এই কুস্তি খেলা চলে আসছে। এই মেলায় কুস্তি লড়ার জন্য প্রতি বছরই তৈরি হয়ে আসেন শতাধিক কুস্তি খেলোয়াড়। বিভিন্ন বিভাগের কুস্তি প্রতিযোগিতায় অংশ নেন তাঁরা।

শুধু তাই নয়, কুস্তি খেলায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের পুরস্কৃতও করা হয় মেলা কমিটির পক্ষ থেকে। জনপ্রিয় এই কুস্তি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট চা-‌শিল্পপতি ও রাজনৈতিক নেতা কৃষ্ণকুমার কল্যাণী-সহ জলপাইগুড়ির জেলা পুলিশ আধিকারিক এবং মাড়োয়ারি সম্প্রদায়ের বিভিন্ন গুণীজনেরা। জনপ্রিয় এই মেলায় অংশ নিতে ডুয়ার্স, শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি-সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে অসংখ্য মানুষ এখানে এসে ভিড় করেন । জানা গিয়েছে, মেলা চলে সারা রাত ধরেই। এছাড়াও মেলায় আগত সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার স্বার্থে জেলা প্রশাসনের তরফে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়।