নয়াদিল্লি: পাসপোর্টের জন্য পুলিশ ভেরিফিকেশন এবার আরও সহজ হচ্ছে। পাসপোর্ট রিনিউ বা ইস্যু-র জন্য পুলিশ ভেরিফিকেশন চালু হচ্ছে অনলাইনেই। এই ব্যবস্থা চালু হলে পুলিশ ভেরিফিকেশনের জন্য আর ২০-৩০ দিন নষ্ট হবে না।

এবার থেকে পাসপোর্টে ভেরিফিকেশনের জন্য এসপি স্তরের পুলিশ আধিকারিকদের ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার(এন পি আর), আধার কার্ড, দ্য ক্রাইম অ্যান্ড ক্রিমিনাল ট্র্যাকিং নেটওয়ার্ক সিস্টেমের(সি সি টিন এন এস) মতো ডেটাবেস ঘাঁটার অধিকার দিচ্ছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

অনলাইন চেকের মাধ্যমে ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশনের উপর থেকে চাপ সরানো হচ্ছে। সূত্রের খবর, সুপারিনটেন্ডেন্ট অফ পুলিশ স্তরের আধিকারিকেরা পাসপোর্টের জন্য আবেদন পেলে আবেদনকারীর ছবি ও ঠিকানা ভেরিফিকেশনের জন্য কেন্দ্রীয় তথ্যভাণ্ডারে লগ ইন করার অনুমতি পাবেন। গোটা দেশজুড়েই চালু হবে এই কেন্দ্রীয় অনলাইন ভেরিফিকেশন ব্যবস্থা।

এখন যত দিন লাগে, নয়া ব্যবস্থা চালু হলে ভেরিফিকেশন করতে অন্তত ১৪ দিন কম সময় লাগবে। সূত্রের খবর, প্রধানমন্ত্রী কয়েকদিন আগেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ও বিদেশমন্ত্রককে যে দিক নির্দেশ দিয়েছেন, সেই  নির্দেশ মেনেই এই পথে হাঁটছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.