ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত ছবি৷

কাঁথি: সম্পর্কের টানাপোড়েনে জেরে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে প্রেমিক৷ কিন্তু সময়মতো পুলিশের নজরে পড়ে যাওয়ায় এযাত্রায় প্রাণে বেঁচে যায় সে৷ ঘটনাটি পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দকুমার থানা এলাকার৷

রবিবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ কাজ সেরে বাড়ি ফিরছিলেন নন্দকুমার থানার অফিসার আমিনুর ইসলাম৷ সেই সময় তিনি দেখেন জাতীয় সড়কের ধারে অচেতন অবস্থায় মুখ থুবড়ে পড়ে আছে এক যুবক৷ তাঁকে মাতাল ভেবে অনেকেই পাশ কাটিয়ে চলে যাচ্ছিল৷

কিন্তু ওই যুবককে ওমনভাবে রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে সন্দেহ হয় আমিনুর ইসলামের৷ তিনি কাছে গিয়ে বুঝতে পারেন ছেলেটি বিষ খেয়েছে৷ সঙ্গে সঙ্গে একটি গাড়িতে করে নন্দকুমার খেজুরবেড়িয়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভরতি করান৷ কিন্তু ওই যুবকের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে অ্যাম্বুলেন্সে করে তমলুক জেলা হাসপাতালে নিয়ে যান৷

জানা গিয়েছে, সময়মতো চিকিৎসার পাওয়ায় ওই যুবককে বাঁচানো গিয়েছে৷ প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান প্রেমঘটিত কারণে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে সে৷ জানা গিয়েছে, ওই যুবকের বাড়ি নন্দকুমার থানার রাণীসাগর গ্রামে৷ তাঁর নাম নয়ন পাল(২২)৷ পরিবারের সঙ্গে কথা বলে পুলিশ জানতে পেরেছে নয়ন ট্রাকের খালাসির কাজ করে৷ বর্তমানে নয়ন তমলুক জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।