শ্রীনগর: উত্তেজনা বাড়িয়ে কাশ্মীর সীমান্তে সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করেই চলেছে পাকিস্তান৷ শুক্রবার রাতে সীমান্তের ওপার থেকে বোমা বর্ষণ শুরু করে পাক সেনা৷ কিছুক্ষণ পর জবাব দেয় ভারতও৷ একঘণ্টার বেশি সময় ধরে দু’পক্ষের মধ্যে চলে গোলাগুলি বর্ষণ৷ এই ঘটনায় এক কাশ্মীরি পুলিশ অফিসার গুরুতর জখম হয়েছেন৷ তাঁকে ভরতি করা হয়েছে হাসপাতালে৷ অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে৷

এদিন পাক সেনা সীমান্ত বরাবর পুঞ্চের শাহপুর সেক্টরে ভারতীয় পোস্ট লক্ষ্য করে হেভি শেলিং করে৷ শাহপুর সেক্টরের গোন্ডরিয়া গ্রামে একটি বোমা এসে পড়ে৷ তাতে স্পেশাল পুলিশ অফিসার হুসেন শাহ গুরুতর জখম হন৷ সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় জম্মুর সরকারি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে৷

সেনা মুখপাত্র জানিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার পর শাহপুর ও কেরনি সেক্টরে সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করে পাক সেনা৷ কোনও প্ররোচনা ছাড়াই তারা সীমান্তে উত্তেজনা বাড়িয়ে হেভি শেলিং শুরু করে৷ বাধ্য হয়ে ভারতও পাল্টা জবাব দেয়৷

১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামার আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার পর সীমান্তে উত্তেজনা কয়েক গুণ বেড়ে গিয়েছে৷ বেসরকারি সূত্র মতে, এই তিন সপ্তাহে ১০০বার সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করেছে পাক সেনা৷ এই সময়ের মধ্যে চার স্থানীয় বাসিন্দার মৃত্যু হয়েছে৷ মৃতদের মধ্যে তিনজন একই পরিবারের৷ সীমান্ত বরাবর ৮০টি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত৷ স্বাভাবিক জীবন সেখানে ব্যাহত হচ্ছে৷ নিরাপত্তার খাতিরে তাদের সীমান্ত এলাকা থেকে দুরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷