রায়গঞ্জ: থানা থেকে ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে এক যুবক গুলি চালানোয় মৃত্যু হল আর এক যুবকের। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদ থানার সংলগ্ন বিএসএনএল অফিসের সামনে। পুলিশসূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ওই যুবকের নাম ভিকি চৌধুরি (২১), বাড়ি হেমতাবাদ থানার কমলাবাড়ি এলাকায়।

সোমবার রাত নটার নাগাদ, হেমতাবাদ থানা থেকে ঢিল ছোঁড়া দুরত্বে বিএসএনএলের অফিসের সামনে ভিকি চৌধুরিকে মাথায় গুলি করে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। পুলিশ গুলির আওয়াজ শুনতে পেয়ে ওই দুষ্কৃতীদের পিছু ধাওয়া করে৷ পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে। ভিকিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হেমতাবাদ প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র পাঠানো হয়। অবস্থার অবনতি ঘটলে চিকিৎসক জখমকে রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। 

বুধবার সকালে ভিকি চৌধুরীর মৃত্যু হয়। এদিন মৃত তাঁর দেহকে রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতাল থেকে তুলে এলাকায় নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। উত্তেজিত জনতা অভিযুক্ত জনৈক ষষ্ঠী দত্তের দোকান ও বাড়িতে ভাঙচুর চালায়৷ এছাড়া একটি বোলেরো গাড়ি এবং একটি বাইকও ভাঙচুর করা হয়। এর পর দোকানিদের নিরাপত্তা এবং হেমতাবাদ বাজারে পুলিশ মোতায়েনের দাবিতে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা রায়গঞ্জ-বালুরঘাট ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে। যান চলাচল বন্ধ হওয়ায় বহু মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হয়৷ জনতার দাবিতে ঘটনায় মূল অভিযুক্ত ষষ্ঠী দত্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ।