স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: হোলির পরে রামনবমী এবারের লেকসভা ভোট প্রচারের হাতিয়ার৷ গেরুয়া শিবিরের পাশাপাশি তৃণমূলও পালন করল রামনবমী৷ তবে বিতর্ক দেখা দিল এক পুলিশকর্মীকে নিয়ে৷ উর্দি পরেই রামনবমীর মিছিলে লাঠি খেলায় মাতলেন তিনি৷

গতকাল থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রামনবমী পালনের নামে চলছে দলীয় প্রচার৷ আজ রবিবারও সেই ধারা অব্যাহত ছিল৷ বিজেপি ও তৃণমূলের অনেক প্রার্থী যার যার এলাকায় রামনবমী উপলক্ষে মিছিল বের করেন৷ কিন্তু আসানসোলের কুলটিতে দেখা গেল অন্য চিত্র৷ কোনও দলের নেতা বা কর্মী নয়, খোদ পুলিশকর্মী সামিল রামনবমী উৎসবে৷

শনিবার উর্দি পরা এক পুলিশকর্মীকে দেখা গেল রাম নবমীর অনুষ্ঠানে লাঠি খেলায় মেতে উঠতে৷ ঘটনাটি ঘটেছে আসানসোলের কুলটিতে৷ অভিযোগ, খাকি উর্দি পরে কর্তব্যরত অবস্থায় একজন পুলিশকর্মী পাকড়ি পরে বিজেপি কর্মীর সঙ্গে লাঠি খেললেন৷ তাও আবার সার্ভিস রাইফেল নিয়ে৷ বরুণ মণ্ডল নামে ওই পুলিশকর্মী আইন ভেঙেই এটি করেছে৷ বিতর্কীত ওই পুলিশকর্মী নিয়ামত পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই৷ রামনবমী উপলক্ষে কুলটি থানার অন্তর্গত বেজডির একটি আখড়ায় উর্দি পরে লাঠি খেলতে দেখা যায় তাঁকে।

যে দিন এই ঘটনা ঘটল সেদিন সকালেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তলোয়ার হাতে বলেন,উৎসব মানেই উন্মাদনা৷ যে উৎসবে উন্মাদনা নেই সেটা উৎসবই নয়৷ নির্বাচন কমিশন, ভোট এসব আসবে যাবে কিন্তু দেশ ও রাম থেকে যাবে৷