স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: চালক বিমান নিয়ে বিমানবন্দরে নামার সময় হঠাৎ দেখলেন সামনে ফানুস৷ দুর্ঘটনা এড়াতে কি করবেন বুঝে উঠতে পারছিলেন না তিনি৷ গত বছর এমন ঘটনার পর বিমান চালক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ জানান৷ এবছর বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেট বিমানবন্দর সংলগ্ন চারটি থানা এলাকায় ফানুস ওড়ানো নিষিদ্ধ করল৷ ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই নিয়ম জারি থাকবে৷ এমনকি বিনোদনের জন্য ব্যবহার করা যাবে না লেজার লাইটও৷

সম্প্রতি বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেট এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বিমানবন্দর লাগোয়া ওই চারটি থানা এলাকায় ফানুস ওড়ানো যাবে না৷ এই থানাগুলো হল এয়ারপোর্ট, নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থানা (এনএসসিবিআইএ), বাগুইআটি, নারায়নপুর৷ পুলিশের কাছে অভিযোগ, প্রতিবছর কালীপুজোর সময় এই সব থানা এলাকায় প্রচুর ফানুস ওড়ানো হয়৷ যার ফলে সমস্যায় পড়েন বিমান চালকরা৷ ল্যান্ডিংয়ের সময় ফানুস উড়ে বিমানের ইঞ্জিনের সংস্পর্শে আসার ফলে যে কোন সময় দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে৷ সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত৷

গতবছর কালীপুজোর সময় একজন বিমান চালক দমদম বিমানবন্দরে নামতে না পেরে বিষয়টি এটিসিকে জানান৷ এরপর বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বিষয়টি উত্তর ২৪ পরগনার জেলাশাসককে লিখিতভাবে জানায়৷ স্বরাষ্ট্র দফতরকেও জানান হয়৷ তারপর একটি বৈঠকের ডাক দেওয়া হয়৷ সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিল এটিসি অফিসারস গিল্ড, বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ও বিধাননগর পুলিশ৷

শুধু বিমান চালকদের যে সমস্যা তা নয়৷ বিমানবন্দর চত্বরে বিভিন্ন তেল সংস্থার জ্বালানি মজুত রয়েছে সেখানেও ফানুস ওড়ে এসে বিপদ হতে পারে৷ তাই এবছর বিমানবন্দর এলাকায় কড়া নজরদারি চালাবে বিধাননগর পুলিশ৷