নয়াদিল্লি:  পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতেরই অংশ। খুব শীঘ্রই তা ভারতের আওতায় নিয়ে আসা হবে। এমনটাই হুঁশিয়ারি দিলেন বিদেশমন্ত্রী জয়শঙ্কর। ভারত জম্মু ও কাশ্মীর থেকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়ার ৩৭০ ধারা বিলোপ করায় পাকিস্তান কাশ্মীর প্রসঙ্গটি আন্তর্জাতিক করতে উদ্যোগী হলে তখন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং উপ রাষ্ট্রপতি এম বেঙ্কাইয়ানাইডু একই রকম বিবৃতি দিতে দেখা গিয়েছে ৷ কারণ ভারত সরকার এখন চায় বাকী গোটা দেশের মতোই জম্মু কাশ্মীর একই রকম সুবিধা ভোগ করে যেন৷ পাকিস্তান এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে তা রাষ্ট্রসংঘে তুলে ধরার চেষ্টা করে ৷

এই মাসের শেষে নিউ ইয়র্কে রাষ্ট্রসংঘের অধিবেশনে ভারতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বৈঠকের সম্ভাবনার সময় মন্ত্রী জানান, ঠিক এখন সম্পর্কের আবহাওয়ার দিকে তাকান এবং সেটাই আপনাকে সদুত্তর দেবে ৷

৩৭০ ধারা বিলোপের পর জম্মু কাশ্মীরের নিরাপত্তা নিয়ে বিদেশি সাংবাদিকদের রিপোর্টের প্রেক্ষিতে করা প্রশ্নের জবাবে জয় শংকর জবাব দেন৷ তাঁর বক্তব্য,‘‘ যে কোনও মানুষেরই মতামত প্রকাশ করার অধিকার রয়েছে তবে আমি কারও কাছ থেকে কাহিনী খুব কমই দেখেছি যে 370 একটি অস্থায়ী বিধান ছিল৷’’

জম্মু কাশ্মীর নিয়ে জনগণ কি বলছে তা নিয়ে চিন্তা করবেন না৷ ১৯৭২ সাল থেকে ভারতের অবস্থান পরিস্কার ৷ আমি আমার কর্মজীবনের অনেকটাই কাটিয়েছি ইউএস কংগ্রেসের সঙ্গে আলোচনায়৷ তারা অনেক কথাই বলে কারণ জনগন কোনও একজন সদস্যের কাছে গেলেই বলে থাকে তোমায় এ কথাই বলতে হবে ৷সোমবার মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন তিনি মোদী এবং ইমারান খান উভয়ের সঙ্গে দেখা করবেন শীঘ্রই৷তিনি আরও জানান, তিনি মনে করেছেন অনেকটা আলোচনাএগিয়েছে৷

জয়শংকর জানান,শুধু পাকিস্তান নয় গোটা বিশ্বেরই নজর রয়েছে হাউস্টন দিকে এবং শিক্ষা নেবে ভারত আর আমেরিকার যা করেছে তা থেকে ৷ তাতে বহুমুখী বার্তা থাকবে ৷ তার বক্তব্য, পাকিস্তানের প্রতি এক চ্যালেঞ্জ রইল সীমান্তে জঙ্গি হানার বিষয়ে, যতদিন না সঠিক প্রতিবেশি হচ্ছে৷তিনি প্রশ্ন তোলেন, বিশ্বে এমন আর কোনও দেশ রয়েছে কি যার বিদেশে নীতিতে রয়েছে প্রতিবেশি দেশেতে জঙ্গি কার্যকলাপ করা৷ পাকিস্তান শুধুমাত্র কথাই বলে অথচ জঙ্গি দমনে কোনও কিছু করে না৷ এদেশের অবস্থান সাধারণ এবং যুক্তিসঙ্গত৷