ছবি:প্রতীকী

জলপাইগুড়ি: টিন দিয়ে ঘেরা ছিল বাড়ি৷ সেই টিনে লুকিয়ে সারারাত গোখরো সাপ৷ রাতভর আতঙ্কে দু’চোখের পাতা এক করতে পারেননি বাড়ির লোকজন৷ পরদিন সকালে এক পরিবেশপ্রেমী এসে সাপটিকে উদ্ধার করেন৷ পরে জঙ্গলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়৷ জলপাইগুড়ি শহর লাগোয়া পাহাড়পুর গ্রামপঞ্চায়েতের ঘটনা৷

পাহাড়পুর গ্রামপঞ্চায়েতের বালাপাড়া এলাকা থেকে সাপটি উদ্ধার করা হয়৷ সোমবার সকালে ওই এলাকার এক গৃহস্থ বাড়ির ঘরে টিনের আড়ালে সাপটি লুকিয়ে ছিল। রাতভর সাপটি ওই একই জায়গায় ছিল বলে বাড়ির লোকজন জানান৷

স্থানীয় বাসিন্দা বাবলু কর্মকার বলেন, প্রতিবেশীর বাড়িতে সাপ ঢোকার খবর শুনেই পরিবেশপ্রেমী বিশ্বজিৎ দত্ত চৌধুরীকে খবর দেওয়া হয়৷ তিনি ঘটনাস্থলে এসে সাপটিকে উদ্ধার করেন৷ বিশ্বজিৎ দত্ত চৌধুরি বলেন, খুবই বিষধর এই সাপ৷ আমরা গোখরো সাপ নামেই চিনি৷

এই সাপটিকে এলাকা থেকে পাঁচশো মিটার দূরের একটি জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হয়৷ অন্যদিকে একই এলাকায় আরও একটি সাপ বাবলু বসাকের বাড়িতে দেখতে পাওয়া যায়৷ পরে সাপটিকে ধরে জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হয়৷ বর্ষা আসতেই চারদিক জল থৈ থৈ৷ আর তার জেরেই নিরাপদ আশ্রয় খুঁজতে এদিক ওদিক লুকিয়ে পড়ছে বিভিন্ন সরীসৃপ৷ ঢুকে পড়ছে ঘরের ভিতর, টালি কিংবা টিনের ছাদে৷