কবিতাটি লিখলেন জয়ন্ত রায়-

শুনেছিলে কানে মাগো কৈশোর প্রত্যুষে। ঐশীবাণী; দেখেছিলে– সুদূরের হাতছানি। যোজন অগণিত পেরিয়ে, কতো-না চেনা মুখ হারিয়ে; চেনা ঘর, আত্মীয় স্বজন। পিছনে ফেলে একে একে। নিষ্কম্প প্রত্যয়ে আমাদের আপন করে নিলে মন্ত্রবলে। মাতৃ-হৃদয়ের অসীম বিস্ময় উন্মোচিত হলো আর বার।

— মাতৃহারা ফিরে পেল মা, ছন্নছাড়া — ছন্দ, গৃহহারা — ঘর, অভুক্ত — আহার, প্রেমহীন ছিল যারা — পেল ভালবাসা, মৃত পেল — জীবনের ভাষা, দলে যাওয়া অজস্র কুঁড়িরা পথে-ঘাটে হেসে।

উঠলো খলখল করে দেবশিশু হয়ে। বয়ে গেল পুলকে ঝলকে মুক্ত বাতাস– ধরণী ভুলে গেল হতশ্রী কালিমা তার। বলে গেলে — “শেষ কথা ভালবাসা, শুধু ভালবাসা”।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।