দেরাদুন: দেশজুড়ে আজ পালিত হচ্ছে ভোট সপ্তমী৷ দেশের ৫৯টি আসনে চলছে ভোট৷ তার আগের দিন সকালে প্রধানমন্ত্রী মোদী রওনা দেন কেদারনাথ৷ বসেন ধ্যানে৷ রবিবার সকালে ধ্যান ভঙ্গ করেন৷ কেদারনাথ মন্দিরে পুজোর পর রওনা দেন বদ্রীনাথ৷ মোদীর আচমকা কেদারনাথ সফর নিয়ে প্রশ্ন ওঠে নানা মহলে৷ নিন্দুকের মতে, ভোটে জয়লাভের বাসনা নিয়ে মন্দিরে ছোটেন মোদী৷

তাহলে কী হারের আশঙ্কা গ্রাস ভুগছেন মোদী? আর সেই জন্যই ছুটতে হল মন্দিরে? কী বললেন মোদী? কেদারনাথ মন্দিরে পুজো দেওয়ার পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন নমো৷ ধন্যবাদ জানান নির্বাচন কমিশনকে৷ জানান, কমিশনের কাছে আমি কৃতজ্ঞ৷ নির্জনে দু’দিন এখানে কাটাতে পারলাম৷

মোদী বলেন, শনিবার থেকে আমি কেদারনাথে আছি৷ বহুদিন পর নিজের জন্য কিছু সময় বের করে উঠতে পারলাম৷ সাংবাদিকরা জানতে চান, ভগবানের কাছে কী চাইলেন? উত্তরে মোদী জানান, তিনি নিজের জন্য কিছুই চাননি৷ বলেন, ‘‘আমি বিশ্বাস করি আমরা সবাই যথেষ্ট যোগ্য৷ ভগবান আমাদের যোগ্যতা দিয়েছে সমাজের উন্নয়নে কিছু অবদান রেখে যাওয়ার৷’’

দু’দিনের ‘ছুটিতে’ প্রধানমন্ত্রী কেদারনাথ ও বদ্রীনাথ মন্দিরে যান৷ শনিবার সকালে দেরাদুন হয়ে কেদারনাথ পৌঁছন৷ কেদারনাথ মন্দিরে পুজোর সেরে গুহায় ধ্যানে বসেন মোদী৷ রবিবার সকালে ধ্যান ভাঙেন৷ মন্দিরের বাইরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপচারিতা করেন৷ তাদের সঙ্গে স্বভাবসিদ্ধ ঢঙে পাঁচ বছরের কাজের নানা কথা, অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন৷ কেদারনাথ থেকে বেরিয়ে স্থানীয়দের দেখে বলে ওঠেন হর হর মহাদেব৷ সকলে মোদীর সুরে সুর মেলান৷

কেদারনাথ থেকে মোদী রওনা দেন বদ্রীনাথ৷ রবিবার রাতে তাঁর দিল্লি ফিরে যাওয়ার কথা৷ গত দু’বছরে মোদী এই নিয়ে চারবার কেদারনাথ দর্শনে আসেন৷