নয়াদিল্লি: দ্বিতীয়বার কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পরে বিশেষভাবে স্বাস্থ্য প্রকল্পের উপর জোর দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিন মাসের মধ্যেই স্বাস্থ্য প্রকল্পের বাস্তাবায়নের পথে হাঁটা শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী৷ শুক্রবার মোদী জানান, স্বাস্থ্য সচেতনতার জন্য সারা দেশে ১২,৫০০ ‘আয়ুষ’ সেন্টার তৈরি করা হবে।

এদিন যোগা পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী জানান, স্বাস্থ্য প্রকল্পের এই সেন্টার গুলির প্রধান লক্ষ্য হবে প্রাথমিকভাবে স্বাস্থ্য-সচেতনতা বৃদ্ধি করা৷ পাশাপাশি তাদের ঠিক করে দেওয়া খাদ্যভ্যাস ও জীবনধারা সকলেরই মেনে চলা উচিত বলেও মনে করেন মোদী৷

সারা দেশে স্বাস্থ্য সচেতনতার জন্য যে ১২, ৫০০ আয়ুষ সেন্টার তৈরি করা হবে, তার মধ্যে ৪,০০০ টি হবে চলতি বছরের মধ্যেই৷ এদিন হরিয়ানাতে ১০টি আয়ুষ সেন্টারের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর সরকার আয়ুষ সেন্টারের কর্মীদের সঙ্গে কথা বলেছেন এবং মানুষের স্বাস্থ্য প্রকল্পে নতুন কি কি সুবিধা দেওয়া যায়, সেই বিষয়েও খুব তাড়াতাড়ি সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলেও জানান মোদী৷

স্বাস্থ্য সচেতনতার ক্ষেত্রে ভারতের ইতিহাসের কথা উল্লেখ করে যোগা ও আয়ুর্বেদকে স্বাস্থ্য প্রকল্পের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়ে ভাবনা রয়েছে মোদী সরকারের।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প