ফাইল ছবি

জয়পুর: ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে নরেন্দ্র মোদী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন বিদেশে গচ্ছিত কালো টাকা ফিরিয়ে আনবেন৷ কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা তো হয়নি৷ উল্টে গত সাড়ে চার বছরে ব্যাংকের টাকা নয়ছয় করে শিল্পপতিরা বিদেশে পালিয়ে গিয়েছে৷ তাদের ফিরিয়ে আনতেও ব্যর্থ হয়েছে মোদী সরকার৷ শনিবার রাজস্থান বিধানসভা নির্বাচনের আগে কালো টাকা ও আর্থিক প্রতারণার ইস্যুতে এই ভাবেই নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনা করেন রাজ্যসভার বিরোধী নেতা গুলাম নবি আজাদ৷ পাশাপাশি মোদীর বিদেশ সফর নিয়েও কটাক্ষ করেন তিনি৷ জানান, এত বিদেশ সফর করেও কালো টাকা ফিরিয়ে আনার উপযুক্ত পরিস্থিতি বা পরিবেশ তৈরি করতে পারেননি তিনি৷

শনিবার জয়পুরের একটি অনুষ্ঠানে এসে রাজ্যসভার বিরোধী নেতা বলেন, ‘‘একজন প্রধানমন্ত্রী বিদেশে প্রমোদ ভ্রমণে তো যান না৷ তিনি যান যাতে দেশের প্রয়োজনের সময় সেই সফরের ফসল ঘরে তুলতে পারেন৷ কিন্তু গত সাড়ে চার বছরে দেখেছি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিদেশ সফর কোনও প্রভাব ফেলেনি৷ নীরব মোদী, মেহুল চোকসি ও অন্যান্য ঋণখেলাপিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে পারেননি৷ কারণ তাঁর বিদেশ সফর কোনও দাগই কাটতে পারেনি৷’’ তিনি ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে কালো টাকা নিয়ে মোদীর প্রতিশ্রুতির কথাও মনে করিয়ে দেন৷ এরপরেই তাঁর সংযোজন, করদাতাদের টাকার নয়ছয় হচ্ছে৷ মোদী সেটা দেখছেন৷ কিন্তু আটকাতে পারছেন না৷

আরও পড়ুন: হিন্দু পুণ্যার্থীদের জন্যে দারুণ খবর! বড়সড় ঘোষণা করল IRCTC

সিবিআইয়ের গৃহযুদ্ধ ও দুই শীর্ষকর্তার অপসারণ নিয়েও মুখ খোলেন কংগ্রেসের এই দুঁদে সাংসদ৷ রাহুলের মতো তিনিও দাবি করেন, রাফায়েল যুদ্ধবিমান নিয়ে তদন্ত করতে যাচ্ছিলেন সিবিআই অধিকর্তা অলোক বর্মা৷ তাই তাঁকে ছুটিতে পাঠানো হল৷ গুলাম নবি আজাদের অভিযোগ, বিজেপি সরকার শুধু গালভরা প্রতিশ্রুতি দিয়ে গিয়েছে৷ সরকারি প্রকল্পগুলি নিয়ে পাবলিসিটি করে গিয়েছে৷ কিন্তু একটিও প্রতিশ্রুতি পালন করেনি৷ শুধু হাজার হাজার কোটি টাকার দুর্নীতিতে জড়িয়ে গিয়েছে৷