নয়াদিল্লি: বদলে যাচ্ছে ভারতের এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। যে বিমানে দেশ-বিদেশে ভ্রমণ করেন দেশের প্রধানমন্ত্রী কিংবা রাষ্ট্রপতি, সেই বিমানই হল এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। এবার সেই বিমান আরও বেশি সিরক্ষিত ও অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন। ইতিমধ্যেই আমেরিকায় অ্যাসেম্বল করা হয়েছে নতুন ওই বোয়িং বিমান। সেটি আনতে আমেরিকা পাড়ি দিয়েছে এয়ার ফোর্সের আধিকারিকেরা।

শুক্রবারই তাঁরা আমেরিকার উদ্দেশ্যে পাড়ি দিয়েছেন। রয়েছে ভিভিআইপি সিকিউরিটি অফিসারেরা ও কেন্দ্রের উচ্চপদস্থ কয়েকজন আধিকারিক।

এতদিন পর্যন্ত বোয়িং-৭৪৭ বিমান ব্যবহার করা হত। এবার আনা হচ্ছে বোয়িং ৭৭৭। শুধু তাই নয়, মার্কিন প্রেসিডেন্টের জন্য নির্দিষ্ট করা এয়ার ফোর্স ওয়ান বিমানে যে প্রযুক্তি ও সুবিধা থাকে, সেটাই ব্যবহার করা হচ্ছে নতুন এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ানে।

Read More: দুর্ঘটনাগ্রস্ত এয়ার ইন্ডিয়া বিমানের ককপিটে ছিলেন স্বর্ণ পদক পাওয়া যুদ্ধবিমানের পাইলট

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর এই বিমান চালাতেন এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলট। এবার থেকে এয়ার ফোর্সের পাইলট চালাবেন সেই বিমান। অন্যদিকে এয়ার ইন্ডিয়ার বোয়িং ৭৪৭ বিমান ওড়ানো হবে আন্তর্জাতিক রুটে। নতুন দুটি এয়ারক্রাফট নিরাপত্তায় মুড়ে কাযর্ত দুর্গে পরিণত করা হয়েছে।

নতুন এই এয়ারক্রাফটে থাকবে অ্যাডভান্সড ডিফেন্স সিস্টেম, যা রয়েছে এয়ার ফোর্স ওয়ানে, যেটি বিশ্বের সবথেকে নিরাপদ বিমান।

এই বিমানের রেঞ্জ আনলিমিটেড। অর্থাৎ কোথাও অবতরণ না করে গোটা বিশ্ব ঘুরে আসতে পারবে এই বিমান। মাঝ আকাশে রিফুয়েলিং করার ক্ষমতা রাখে এটি।

Read More: শারীরিক অবস্থায় নেই বিশেষ উন্নতি, এখনও ভেন্টিলেশন সাপোর্টে প্রণব মুখোপাধ্যায়

জানা গিয়েছে, এই বিমানে থাকছে বিশেষ মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম, যাকে বলা হচ্ছে ‘লার্জ এয়ারক্রাফট ইনফ্রারেড কাউন্টারমেজার্স’ ও সেলফ প্রোটেকশন স্যুট। এছাড়া এতে থাকছে অ্যাডভান্সড ইলেকট্রনিক ওয়ারফেয়ার স্যুট. যা শুধু শত্রুপক্ষকে প্রয়োজনে অ্যাটা্কই করতে পারবে না, কেউ অ্যাটাক করলে তাকে যোগ্য জবাবও দিতে পারবে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও