নয়াদিল্লি: গ্রামীণ ভারতে কর্মসংস্থানের সুযোগ বাড়াতে তৎপর কেন্দ্রীয় সরকার। সেই লক্ষ্যেই আগামী ২০ জুন ‘গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান’ প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কেন্দ্রের এই নয়া উদ্য়োগ ভারতের গ্রামাঞ্চলের বেকার তরুণ-তরুণী বিশেষত পরিয়ায়ী শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের পক্ষে সহায়ক হবে বলে মনে করছে প্রধানমন্ত্রীর দফতর।

করেনা মোকাবিলায় একটানা লকডাউনের জেরে দেশের অর্থব্যবস্থা ধুঁকছে। ইতিমধ্যেই ভিনরাজ্য থেকে লক্ষ-লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক নিজেদের রাজ্যে ফিরে এসেছেন।

তবে তাঁদের অনেকেই নিজেদের রাজ্যে কাজের সুযোগ পাচ্ছেন না। সংসারের খরচ চালাতে দিশেহারা দশা বহু পরিযায়ী শ্রমিকের। অনেকেই করোনা আতঙ্ক নিয়েই ফের পরিযায়ী শ্রমিকের কাজে যেতেও তৎপরতা নিচ্ছেন।

লকডাউনের জেরে বহু ছোট সংস্থা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বহু জায়গায় তার জেরে কাজ খুইয়েছেন হাজার-হাজার শ্রমিক-কর্মচারী।

এই পরিস্থিতিতে ‘গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান’ উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। আগামী ২০ জুন কেন্দ্রের এই নয়া উদ্যোগের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

গ্রামীণ ভারতে জীবিকার সুযোগ বাড়ানোর জন্যই কেন্দ্রের এই তৎপরতা। কেন্দ্রের এই প্রকল্পের মাধ্যমে লাভবান হবেন পরিযায়ী শ্রমিকরাও। দেশের ৬টি রাজ্য়ের ১১৬টি জেলায় ১২৫ দিনের এই ক্যাম্পেন চলবে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ