নয়াদিল্লি: তৃতীয় সন্তানদের কাছ থেকে যদি ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়া হয় তাহলে মোদীও ভোট দানের অধিকার হারাবেন৷ জন্ম নিয়ন্ত্রণে বাবা রামদেব যে কড়া দাওয়াইয়ের কথা শুনিয়েছিলেন তার জবাব মোদীর উদাহরণ টেনে এনে দিলেন আসাদুদ্দিন ওয়াইসি৷

হায়দরাবাদের এই সাংসদ বলেন, ‘‘মোদী তাঁর বাবা-মায়ের তৃতীয় সন্তান৷ তাহলে তাঁর ভোট দানের অধিকার হারানো উচিত নয় কি?’’ কথাগুলি ট্যুইট করে যোগগুরুকে টিপ্পনি কাটেন আসাদুদ্দিন ওয়াইসি৷ উল্লেখ্য দামোদর দাস মোদী ও হিরাবেন মোদীর তৃতীয় সন্তান নরেন্দ্র মোদী৷ ১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৫০ সালে গুজরাতের ভদনাগরে তাঁর জন্ম৷

দেশে ক্রমশ বাড়ছে জনসংখ্যা৷ জনবিস্ফোরণ রুখতে কড়া দাওয়াইয়ের আরজি জানালেন যোগগুরু রামদেব৷ রবিবার হরিদ্বারে যোগগুরু জানান, সরকারের এই ইস্যুতে কড়া আইন প্রণয়ন করা উচিত, যাতে দুটির বেশি সন্তান নেওয়ার আগে দম্পতিরা দ্বিতীয়বার ভাবে৷ তবেই সম্ভব দেশের জনসংখ্যার বৃদ্ধিতে লাগাম পড়ানো৷

রামদেবের মতে তৃতীয় সন্তান হলেই তাঁকে দেশের ভোটগ্রহণে অংশ নেওয়া থেকে বিরত হতে হবে৷ অর্থাৎ কোনও দম্পতির তৃতীয় সন্তান জন্মালে সে ভোট দিতে পারবে না, কোনও সরকারি সুবিধা পাবে না ও ভোটে দাঁড়াতেও পারবে না বলে আইন আনা উচিত সরকারের বলে মত রামদেবের৷

তিনি এদিন বলেন, ভারতের জনসংখ্যা কোনও ভাবেই ১৫০ কোটি ছাড়ানো উচিত নয়৷ এর চেয়ে বেশি জনসংখ্যা দেশের ক্ষতি করবে৷ আর সেটা তখনই সম্ভব, যখন সরকার কড়া হাতে জন্মনিয়ন্ত্রণ আইন নিয়ে আসবে৷ এর পাশাপাশি, এদিন তিনি সোচ্চার হন গোহত্যা নিয়েও৷ গরু পাচারকারীদের কড়া ও নজরকাড়া শাস্তি দেওয়ার মাধ্যমেই গোহত্যা বন্ধ করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেন তিনি৷ গোমাংস না খেয়ে আরও অন্য ধরণের মাংস খাওয়ার পরামর্শ দেন তিনি৷ দেশ থেকে মদ নিষিদ্ধ করার পরামর্শও দেন রামদেব৷