দেরাদুন: কেদারনাথে ১৫ ঘণ্টা ধ্যান করার পর বদ্রীনাথে রওনা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রবিবার বদ্রীতে পৌঁছে যান তিনি।

বদ্রীনাথের মন্দিরে তুলসীর মালা পরে প্রার্থনা করেন মোদী। ট্যুইট করে মোদী লিখেছেন, ‘ভারতীয় সংস্কৃতির এক গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হল বদ্রীনাথের মন্দির। এই মন্দিরে পূজা দিতে পেরে তিনি আপ্লুত।’

মন্দির থেকে বেরিয়ে বদ্রীনাথেও ধ্যানে বসে যান মোদী। গুহায় নয়, পাহাড়ের কোলেই ধ্যানে বসেন তিনি। বদ্রীনাথ দর্শন সেরে রবিবার রাতেই দিল্লি ফিরবেন তিনি।

এদিকে, কেদারনাথ ও বদ্রীনাথে গিয়ে আদর্শ আচণবিধি লঙ্ঘন করেছেন মোদী৷ ইতিমধ্যেই কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছে তৃণমূল৷ চুপ করে বসে নেই কংগ্রেসও৷ প্রদেশ কংগ্রেসের তরফেও কমিশনে চিঠি দিয়ে একই অভিযোগ আনা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে৷ দ্রুত পদক্ষেপরও দাবি তোলা হয়েছে৷

দুদিনের সফরে শনিবারই উত্তরাখণ্ডে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী৷ শনিবার কেদারনাথ মন্দিরে পুজো দেন মোদী৷ তারপর ঘুরে দেখেন মন্দির চত্বর৷ মন্দির শহরের উন্নয়নে কথা বলেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যসচিবের সঙ্গে৷ পরে কেদারনাথের গুহায় ধ্যানে বসেন তিনি৷ সেই ছবি সম্প্রচারিত হয় সংবাদ মাধ্যমে৷

তৃণমূলের অভিযোগ, কেদারনাথ-বদ্রিনাথ যাত্রা করে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে গেরুয়া দলের ‘পোস্টার বয়’৷