আঙ্কারা: ল্যান্ডিং মোটামুটি স্বাভাবিকই ছিল৷ কিন্তু আচমকাই রানওয়ে থেকে গড়াতে শুরু করল বিমান৷ পাশেই সমুদ্র৷ বিপদ বুঝে ওঠার আগেই দু’জন পাইলট, যাত্রী, বিমান কর্মী সহ ১৬২ জন তখন কার্যত ঝুলছেন সমুদ্র পাড়ে৷ তুরস্কের পেগাসাস এয়ারলাইনসের ওই বিমানটির ছবি ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়।

উত্তর পূর্ব তুরস্কের কৃষ্ণসাগর তীরবর্তী শহর ট্র্যাবজনের বিমান বন্দরে অবতরণের সময় পেগাসাস এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ বিমানটির সাথে ঘটে এই দুর্ঘটনা৷ ছবিতে দেখা গেছে, বিমানটি কৃষ্ণসাগরের কর্দমাক্ত তীরের ওপর আধা ঝুলন্ত অবস্থায় পড়ে আছে, আর এর সামনের অংশ সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে মাত্র কয়েক মিটার ওপরে।

শনিবার আঙ্কারা থেকে যাত্রা শুরু করে পেগাসাস এয়ারলাইনসের ওই বিমানটি। ল্যান্ড করার কথা ছিল ট্র্যাবজনে। বিমান সুরক্ষিতই ল্যান্ড করেছিল বলে জানিয়েছেন চালক। তবে কীভাবে সেটি রানওয়ে থেকে ছিটকে গেল তা এখনও জানা যায়নি৷ তবে এই দুর্ঘটনার পরেও সব যাত্রীই সুরক্ষিত আছেন বলে জানিয়েছে পেগাসাস বিমান কর্তৃপক্ষ।

ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে জানানো হয়েছে সংস্থার তরফ থেকে৷ বলেই দায় এড়িয়ে গিয়েছেন এয়ারলাইনসের উর্ধ্বতন কর্তপক্ষ। তার পর থেকেই মুখে কুলুপ এঁটেছেন সবাই।

স্থানীয় গভর্নর ইউসেল ইয়াভুজ জানিয়েছেন, কেই আহতও হননি। কেন এ ধরণের দুর্ঘটনা হলো তা তদন্ত করা হচ্ছে। শনিবারের ঘটনার পর সাময়িক ভাবে বন্ধ রাখা হয় বিমানবন্দর। রবিবার সকালে ফের সেটি চালু করা হয়।