বিশেষ প্রতিবেদন: অফিসে কাজের চাপ ও প্রতিদিনের একঘেয়ে জীবন থেকে মুক্তি পেতে মন ডানা মেলে উড়তে চায়। দূরে কোথাও পাহাড়ের কোলে কয়েকটা দিন কাটাতে কেমন লাগবে?

কিন্তু দূরে যেতে হলে তো হাতে সময় চাই। অফিসে ছুটি পাওয়া কি মুখের কথা? তবুও চিন্তা নেই! কলকাতার কাছেই রয়েছে মন রিফ্রেশ করার সেরা ঠিকানা পিয়ালি আইল্যাড।

আরও পড়ুন- বাংলাদেশ নারী উন্নয়নের পথিক রণদা প্রসাদ খুনে মৃত্যুদণ্ড অভিযুক্তের

কলকাতা থেকে পিয়ালি আইল্যান্ডের দূরত্ব মাত্র ৭৫ কিলোমিটার। গাড়িতে যেতে সময় লাগে তিন ঘণ্টা। বারুইপুর হয়ে গোচরণ পেরিয়ে খুব সহজেই পিয়ালি দ্বীপে পৌঁছনো যায়। কলকাতার কাছাকাছি হওয়ায় এই ট্যুরে খরচ লাগে নামমাত্র। এই জায়গাটি থেকেই সুন্দরবনের শুরু।

এখানে পিয়ালি নদী এসে মিশেছে মতলা নদীতে। মাতলার বুকে নৌভ্রমণে মাতুন। এ অভিজ্ঞতা সারা জীবনেও ভুলতে পারবেন না। কাছেই রয়েছে ঝড়খালি কৈখালী, ভরতগড়। ভোরবেলার সূর্য এসে পড়ে শান্ত পিয়ালির জলে– এ দৃশ্য ভীষণ উপভোগ্য। রয়েছে নানা প্রজাতির পাখপাখালি। সে কারণেই পক্ষী বিশেষজ্ঞদের কাছেও জায়গাটি হয়ে উঠেছে অত্যন্ত প্রিয়।

আরও পড়ুন- প্রয়াত বাংলাদেশের গান্ধীবাদী সেবাকর্মী ঝর্না ধারা চৌধুরী

এখানে সারা বছরই পর্যটকদের ভিড় থাকে। শীতে এখানে অনেকেই পিকনিকে যান। তবে বর্ষাকালেও পিয়ালি আইল্যান্ডে বেড়াতে যাওয়া যেতে পারে। প্রকৃতির সান্নিধ্য আপনাকে করে তুলবে সজীব। সঙ্গে রয়েছে টাটকা মাছ। সন্ধ্যার হাওয়ায় ঘুরে বেড়ান।

অনেক মাছ-ভাজার দোকান চোখে পড়বে। সেখান থেকে টাটকা মাছের স্বাদ নিন। থাকার জন্য রয়েছে পিয়ালি আইল্যান্ড ট্যুরিস্ট লজ। আগে থেকে বুকিং করা থাকলে ভালো। বুকিংয়ের জন্য যোগাযোগ করুন এই নম্বরে ৯৪৩৩৪৩৫১৮১।