কলকাতা: ‘পিঙ্ক বল টেস্ট’এর প্রথম দিনেই অল-আউট বাংলাদেশ৷ প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ করেছে ১০৬ রান৷ ম্যাচ শুরু কয়েকদিন আগেই শেষ হয়ে গিয়েছে প্রথম তিনদিনের টিকিট৷ ফলে ব্ল্যাকে টিকিট বিক্রির প্রবণতা বেড়ে যায়৷ কাউন্টার টিকিট থেকে টিকিট না-পেয়ে আদ্যপ্রান্ত ক্রিকেটপ্রেমীরা ৫০ টাকার টিকিট ৫০০ টাকায় কেনা আগ্রহ দেখায়৷ কেউ কেউ আবার ১০০ টাকার টিকিট হাজার টাকাতেও কিনেছেন৷

যদিও পুলিশের দাবি, তাদের কাছে এই ধরনের কোনও অভিযোগ আসেনি৷ ইতিমধ্যেই জমে উঠেছে ভারত- বাংলাদেশ পিঙ্ক বল টেস্ট৷ কলকাতার রঙ এখন গোলাপি৷ কিন্তু অনেক ক্রিকেটপ্রেমী টিকিট না পেয়ে হতাশ৷ কলকাতা জুড়ে এখনও টিকিটের হাহাকার৷ তার সুযোগ নিয়ে কিছু কালোবাজারি মাঠে নেমে পড়েছে৷ তারা ব্ল্যাকে ৫০ টাকার টিকিট বিক্রি করছে ৫০০ / ৬০০ টাকায়৷ অর্থাৎ প্রায় ১০-১২ গুণ বেশি দামে৷ ময়দানে আনাচে-কানাচে শোনা যাচ্ছে টিকিটের এই কালোবাজারি কথা৷

তবে টিকিটের কালোবাজারি রুখতে তৎপর হয়েছে কলকাতা পুলিশও৷ অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়েছে ৯ জন টিকিট ব্ল্যাকারকে৷ লালবাজার গোয়েন্দা বিভাগের গুন্ডা দমন শাখার আধিকারিকরা ইডেন গার্ডেন্স এলাকায় নজরদারি চালায়৷ বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে সাদা পোশাকে চলে নজরদারি৷ অনলাইনে সমস্ত টিকিট বিক্রি হয়ে যাবার পর অফলাইনে একটি টিকিট কাউন্টার থেকে টিকিট বিক্রি করা হচ্ছিল৷ সেখানে দীর্ঘ লাইন ছিল ক্রিকেটপ্রেমীদের৷

গত বুধবার সকাল থেকেই নজরদারি চালাচ্ছিল লালবাজারে গোয়েন্দা বিভাগ৷ অন-লাইনে ম্যাচের প্রথম চার দিনের সমস্ত টিকিট শেষ হয়ে যাওয়ায় পঞ্চম দিনের টিকিটের জন্য়ও চাহিদা দেখা গিয়েছে৷ এই সুযোগে টিকিটের কালোবাজারিতে নেমেছে ব্ল্যাকাররা৷

অভিযোগ, কাউন্টারে ঘুরে ক্রিকেটপ্রেমীরা৷ কিন্তু ফিরে যাবার পথে অনেকেই ব্ল্যাকে চড়া দামে টিকিট কিনে নিয়ে যাচ্ছেন৷ গোপন সূত্রে এই খবর পুলিশের কাছে আসতেই আরও সক্রিয় হয় লালবাজারের গোয়েন্দা দল৷
গত বুধবার বিকেলে কয়েকজনকে সন্দেহ হওয়ায়, সেখানে সাদা পোশাকের পুলিশের নজরদারি বাড়ানো হয়৷

ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচের টিকিট ব্ল্যাকে বিক্রি করতে গিয়ে গোয়েন্দাদের জালে বুধবার ধরা পড়ে ৬ জন৷ পরের দিন আরও ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়৷ ধৃতদের তল্লাশি চালিয়ে ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচের মোট ৩৮টি টিকিট বাজেয়াপ্ত করা হয়৷ তাদের বিরুদ্ধে ময়দান থানায় প্রতারণার অভিযোগে মামলা রুজু করেছে পুলিশ৷