আমদাবাদ: বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম সাক্ষী থাকল দেশের দ্বিতীয় পিঙ্ক বল টেস্টের৷ সাক্ষী থাকল অক্ষর প্যাটলের দুরন্ত স্পিন এবং বেন স্টোকসের ড্রামা’র৷ স্টোকসের ড্রপ ক্যাচ থার্ড-আম্পায়ার ওভারটার্ন করার পর হাস্যকর প্রতিক্রিয়া দেখান ইংরেজ অল-রাউন্ডার৷

বুধবার মোতেরায় নরেন্দ্র মোদী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পিঙ্ক বল টেস্টে স্বপ্নের শুরু করে ভারত৷ টস জিতে প্রথম ব্যাটিং নেওয়া ইংল্যান্ড মাত্র ১১২ রানে গুটিয় যায়৷ ভারতীয় স্পিনারদের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করেন ইংরেজ ব্যাটসম্যানরা৷ দু’টির কম সেশনে ইংল্যান্ডের ইনিংস শেষ করে দেন টিম ইন্ডিয়ার স্পিনরারা৷ মাত্র ৩৮ রান খরচ করে ৬টি উইকেট তুলে নেন বাঁ-হাতি স্থানীয় স্পিনার অক্ষর৷ তিনটি উইকেট নেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন৷ অপর উইকেটটি নেন শততম টেস্ট খেলা ডানহাতি পেসার ইশান্ত শর্মা৷

তৃতীয় স্পিনার ওয়াশিংটন সুন্দরকে ব্যবহার করার প্রয়োজন হয়নি ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলির৷ প্রথম সেশনে ২৭ রানে ২ উইকেট হারানোর পর একটা প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল জ্যাক ক্রলি এবং অধিনায়ক জো রুট জুটি। কিন্তু চা-বিরতির পর দ্বিতীয় সেশনে ন্যূনতম প্রতিরোধ গড়ে তুলতে ব্যর্থ হন ইংরেজ ব্যাটসম্যানরা। দ্বিতীয় সেশনের প্রথম ওভারেই ওলি পোপকে ফেরান অশ্বিন। এরপর জোফ্রা আর্চার, জ্যাক লিচ, স্টুয়ার্ট ব্রডরা একে একে ক্রিজে আসেন এবং সাজঘরে ফিরে যান। চা-বিরতির আগে ২ উইকেট সংগ্রহ করা অক্ষর দ্বিতীয় সেশনে আরও বিধ্বংসী। দ্বিতীয় সেশনে বাঁ-হাতি স্পিনারের ঘূর্ণিতে সাজঘরে ফেরেন বেন ফোকস, জোফ্রা আর্চার, স্টুয়ার্ট ব্রড এবং বেন স্টোকস। মাত্র ৪৮.৪ ওভারেই ১১২ রানে গুটিয়ে যায় রুটদের ইনিংস। ইংল্যান্ড ইনিংসে সর্বোচ্চ রান ওপেনার জ্যাক ক্রলির (৫৩)।

ভারতীয় ইনিংসের শুরুটা মন্দ হয়নি৷ ওপেনিং জুটিতে ৩৩ রান যোগ করেন রোহিত শর্মা ও শুভমন গিল৷ ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই স্টুয়ার্ট ব্রডের ওভারে দ্বিতীয় স্লিপে গিলের ক্যাচ ফেলেন স্টোকস৷ ব্রডের ডেলিভারি গিলের ব্যাটের কিনারা লেগে স্লিপে স্টোকসের হাতে চলে যায়৷ কিন্তু বল মাটি স্পর্শ করায় জীবন পান গিল৷ তবে স্টোকস আউটের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী হলেও থার্ড-আম্পায়ারের রিভিউতে পরিষ্কার দেখা যায় বল মাটি স্পর্শ করেছে৷ থার্ড-আম্পায়ার নট-আউট দিলে অবাক হয়ে যান স্টোকস৷ তবে বল মাটি স্পর্শ করার পরও ইংল্যান্ড রিভিউ নেওয়ায় অবাক হয়ে যান ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি৷

তবে শূন্য রানে স্টোকসের হাতে জীবন পাওয়ার পরও বেশিদূর এগোতে পারেননি গিল৷ ব্যক্তিগত ১১ রানে জোফরা আর্চারের বাউন্সারে উইকেট দিয়ে আসেন টিম ইন্ডিয়ার এই তরুণ ওপেনার৷ এক গুচ্ছ ক্যাচ ফেলার পর রোহিতের স্টাম্পিং মিস ভারতকে বড় রানের পথে এগিয়ে দেয় ইংল্যান্ড৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.