ভোপাল: বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশ হচ্ছে ভারত। আর এই গণতন্ত্রের সবথেকে বড় উৎসব হচ্ছে নির্বাচন। জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলেই এই উৎসবে সামিল হতে পারেন। বয়স ১৮ বছরের বেশি হলেই হল।

নিজের যোগ্যতা নিয়ে গণতন্ত্রের সবথেকে বড় উৎসবে সামিল হলেন সোনু মালি। মধ্য বয়সী এই মহিলা শারীরিকভাবে বিকলাঙ্গ। নিজের পায়ে দাঁড়ানোর ক্ষমতা তাঁর নেই। হুইল চেয়ারে করে তিনি পৌঁছেছেন ভোট কেন্দ্রের সামনে। পরে প্রায় হামাগুড়ি দিয়ে কোনোরকমে ভোট কেন্দ্রের ভিতরে যান এবং নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

আলোচিত মহিলা সোনু মালি মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা। ওই রাজ্যের ইন্দোর শহরের নন্দ নগর এলাকার ৩১৬ নম্বর বুথের ভোটার তিনি। রবিবার সপ্তম দফার ভোটের দিনে ওই ভোট কেন্দ্রে গিয়ে তিনি নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। সবুজ সালোয়ার কামিজ এবং গোলাপী ওড়না পরিহীত এই ভোটারের দিকে বিশেষ নজর ছিল সকলের। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের সৌজন্যে সেই আগ্রহ আরও বৃদ্ধি পেয়েছিল।

এদিন ভোট দিয়ে বাইরে এসে হাসি মুখে নিজের কালি লাগানো আঙুল দেখান সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের। পরে সাংবাদিকদের বলেন, “দেশ এবং এলাকার সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে সঠিক প্রার্থীকে ভোট দেওয়া আমাদের গুরুত্বপুর্ণ কর্তব্য বলে আমি মনে করি। ভোট দেওয়া আমাদের অধিকার এবং তা যথাযথভাবে পালন করা উচিত।” তাঁর মতো অন্যান্য শারিরিকভাবে অক্ষম ব্যক্তিদের কাছেও তিনি নিজের ভোট দেওয়ার আবেদন করেছেন সোনু মালি।

রবিবার সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের অন্তিম তথা সপ্তম দফায় দেশের ৫৯টি আসনে ভোট গ্রহণ হচ্ছে। যার মধ্যে মধ্যপ্রদেশের আট আসনে হচ্ছে ভোট গ্রহণ। ওই রাজ্যের বাকি ২১ আসনে আগেই ভোট গ্রহণ হয়ে গিয়েছে।