নয়াদিল্লিঃ ক্রমশ জটিল হচ্ছে দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক পরিস্থিতি। সোমবার অপারেশনের পর থেকেই তাকে রাখা হয়েছিল কড়া পর্যবেক্ষণে। এখনও পর্যন্ত ভেন্টিলেশনে রয়েছেন তিনি।। আপ্রান চেষ্টা চালাচ্ছেন চিকিৎসকরা। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির দ্রুত আরোগ্য কামনায় বিশেষ পুজো পাঠ চলছে গোটা বাংলাজুড়েই। বিশেষ করে তাঁর নিজের গ্রাম কির্নাহারেও চলছে বিশেষ পুজোপাঠ।

রবিবার পড়ে গিয়ে মাথাতে চোট পান প্রণব। আর সেই কারণেই তাকে দ্রুত নিয়ে আসা হয়েছিল দিল্লির সেনা হাসপাতালে। পরিস্থিতি বুঝে অস্ত্রপচারের সিদ্ধান্ত নেন ডাক্তাররা। যদিও এর আগে করোনা পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু তাতে রিপোর্ট পজিটিভ আসাতে অবাক হয়েছিলেন অনেকেই।

বিষয়টি প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি নিজেও তাঁর সোশ্যাল মিডিয়াতে টুইট করে জানিয়েছিলেন। পাশপাশি এও জানিয়েছিলেন, তার সঙ্গে যারা দেখা করেছিলেন তারা যেন নিজেদের আইসোলেশনে রাখেন। আর করোনার পরীক্ষা করিয়ে নেন।

এদিনই দিল্লির আর্মি রিসার্চ অ্যান্ড রেফারাল হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, প্রণব মুখোপাধ্যায়ের স্বাস্থ্যের অবস্থা এখনও সঙ্কটজনক। আপাতত তিনি ভেন্টিলেটরে আছে ও হেমোডায়নামিক্যালি স্টেবল রয়েছেন।’

শরীরের মধ্যে মূলত হৃদযন্ত্রে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক থাকলে, তাকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় হেমোডায়নামিক্যালি স্টেবল বলা হয়।

এদিন ট্যুইট করেন তাঁর মেয়ে শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্যায়ও। বুধবার নিজের ট্যুইটার হ্যাণ্ডেলে তিনি লিখেছেন, “গত বছর অগাস্টের ৮ তারিখ সবচেয়ে আনন্দের দিন ছিল, বাবা ভারতরত্ন পেয়েছিলেন। ঠিক একবছর পরে অগাস্টের ১০ তারিখ সঙ্কটজনক অবস্থায় রয়েছেন। বাবার জন্য যেটা সবচেয়ে ভালো ভগবান যেন তাই করে। আমি আনন্দ এবং দুঃখ সবকিছুর জন্য শক্তি রাখতে পারি। আমি মন থেকে সকলকে তাঁদের ভাবনার জন্য ধন্যবাদ জানাই”।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও