ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: বেশ কিছু ইলেকট্রনিক্স আইটেম ও কমিউনিকেশন ডিভাইসের উপর আমদানি শুল্ক বাড়াতে চলেছে কেন্দ্র৷ কিছুদিন আগেও এই ধরণের একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কেন্দ্র সরকার৷ আমদানি শুল্ক বৃদ্ধির ঘোষণাটি ইতিমধ্যেই উত্তেজনা ছড়াচ্ছে৷ যেটির সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে ইউনাইটেড স্টেটস, চিন সহ অন্যান্য দেশগুলির৷ ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার সম্ভবনা থাকছে নামীদামি সংস্থাগুলির৷ যার মধ্যে থাকছে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স, নোকিয়া, এরিকসন সহ অন্যান্য সংস্থাগুলি৷

কিছুদিন আগেই টাকার দামে পতন দেখা দিয়েছিল৷ যার সঙ্গেও এই আমদানি শুল্ক বৃদ্ধির বিষয়টি সম্পর্কিত৷ পণসামগ্রীর উপর বৃ্দ্ধি পাওয়া শুল্কের পরিমান ঠিক কত হবে, সে বিষয়টি এখনও অষ্পস্ট৷ তবে, ইতিমধ্যেই আমদানি শুল্ক বৃদ্ধির জন্য পণ্যসামগ্রীর একটি তালিকা তৈরি করেছে সরকার৷ যার মধ্যে স্মার্টওয়াচ, ফোন সহ অন্যান্য সামগ্রীও রয়েছে৷ পরিকল্পনাটির বাস্তবায়ন রিলায়েন্স জিও ইনফোকম, ভারতীয় এয়ারটেল, আইডিয়ার মত টেলিকম সংস্থাগুলিকে প্রভাবিত করতে পারে৷

এক্সপার্টরা জানাচ্ছেন, একইসঙ্গে সিদ্ধান্তটি প্রভাব ফেলবে হাইস্পিডের ব্রডব্যান্ড সার্ভিসগুলির উপরেও৷ সংরক্ষণনীতির জন্য নেওয়া এই উদ্যোগটি নরেন্দ্র মোদীর নতুন হাতিয়ার৷ একই সঙ্গে সিদ্ধান্তটি প্রচার করছে ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রোগ্রামটিকে৷ মোবাইল ফোন, টিভির উপর আমদানি শুল্ক বৃদ্ধি ছাড়াও আরও ৪০ টি পণ্যসামগ্রীর দামে আসতে চলেছে পরিবর্তন৷ যেটির সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ফেব্রুয়ারির বাজেটে৷

গত মাসে গুরুত্বপূর্ণ নয় এমন ১৯ টি পণ্যসামগ্রীর আমদানি কর বাড়ানো হয়েছিল৷ যার মধ্যে ছিল এয়ারকন্ডিশনার, রেফ্রিজেটর, ফুটওয়ার, স্পিকার সহ একাদিক সামগ্রী৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.