স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা : ‘ফাগুন বউ’৷ ফের টিআরপি টপারে নাম উঠে এল এই ধারাবাহিকের৷ টানা পাঁচ মাস ধরে টিআরপি শীর্ষে রয়েছে এই ধারাবাহিক৷ এবং অন্যান্য ধারাবাহিক ও রিয়্যালিটি শোয়ের টিআরপি পড়লেও ‘ফাগুন বউ’র কোনওদিনই পড়েনি৷

বহুদিন পর বিক্রম এবং ঐন্দ্রিলার জুটিকে পর্দায় দেখতে পেয়ে দর্শকরা স্বাভাবিকভাবেই ভীষণ উত্তেজিত ছিল৷ কারণ তাঁদের একসঙ্গে প্রথম ধারাবাহিক ‘সাত পাকে বাঁধা’ থেকেই জনপ্রিয়তা লাভ করেন তাঁরা৷ সেই ধারাবাহিকটিও টিআরপি টপার হিসেবেই পরিচিত ছিল৷

সিরিয়ালটি শেষ হয়ে যাওয়ার পর বিক্রম এবং ঐন্দ্রিলার জুটিকে ফিরে পাওয়ার জন্য ফ্যানেরা কম অনুরোধ করেনি৷ দীর্ঘ নয়-দশ বছর পর ঐন্দ্রিলার সঙ্গে ‘ফাগুন বউ’র হাত ধরে ফের মুগ্ধ করেন অনুরাগীদের৷ সোনিকার মৃত্যুর পর অভিনয় জগৎ থেকে বেশ লম্বা একটা ব্রেক নিয়েছিলেন তিনি৷

সেই সময় ‘ইচ্ছেনদী’ ধারাবাহিকটিও খুব জন্পিরয় ছিল৷ কিন্তু সেই দুর্ঘটনার পর সিরিয়ালটি দ্রুত শেষ করতে বাধ্য হন নির্মাতারা৷ কামব্যাকের আগে অনেক মহলেই প্রশ্ন উঠেছিল বিক্রমকে ফের অভিনয় জগৎ আগের মতন মেনে নেবে কিনা৷ সেই জনপ্রিয়তাই তিনি পাবেন কিনা৷

বেশ কয়েকটি ভালো ছবিও সাইন করেছিলেন তিনি৷ যা সেই সময় মুক্তি পায়৷ আপাতত কামব্যাক করে আবারও সাফল্য লাভ করেছেন অভিনেতা৷ জনপ্রিয়তা এবং ভক্তদের ভালবাসা এখনও একই রকম রয়েছে তাঁর জন্য৷ অন্যদিকে ‘ফাগুন বউ’তেও চলছে টানটান উত্তেজনা৷

 

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.