নয়াদিল্লি:  দিনে দিনে বাড়ছে পেট্রোলের দাম। পেট্রোল এখন বিকোচ্ছে সোনার দরে। তাই বুঝে শুনে তো কিনতে হবে বস! তাইতো সব সময় পেট্রোল কিনলে চলবে না। জেনে নিন, সারা দিনের কোন সময়টা পেট্রোল/ডিজেল ভরালে আখেরে লাভ হয়। বিশেষজ্ঞদের মতে, পেট্রোলিয়ামজাত পদার্থ সকালের দিকে কেনাটাই সবচেয়ে লাভের হয়। এর কারণ হল পেট্রোল বা ডিজেলের মত পেট্রোলিয়াম প্রোডাক্ট গরম থাকা অবস্থা বেড়ে যায়।

পড়ুন আরও- জোর ধাক্কা, শহিদ দিবসেই শতাধিক তৃণমূল কর্মীকে ছিনিয়ে নিল বিজেপি

দুপুরের দিকে তাপমাত্রা সাধারণত বেশি থাকে। ফলে টাকা খরচ করে যখন আমরা নির্দিষ্ট পরিমাণ পেট্রোল/ডিজেল কিনি তখন সেটা expansion বা বিস্তৃত বা স্ফিত অবস্থায় থাকে। সকালের দিকে ঠান্ডা তাপমাত্রায় পেট্রোল, গ্যাস বা ওই জাতীয় পদার্থ অপেক্ষাকৃত অনেক ঘন থাকে।

পড়ুন আরও- ২১ জুলাই: সরকারি কর্মীদের মমতা কাঁদালেন, আবার মমতাই হাসলেন

ফলে একই পরিমাণ পেট্রোল বা ডিজেল দিনের অন্য সময়ের চেয়ে সকালের দিকে কিনলে খুব সামান্য হলেও বেশি পাওয়া যায়।

কথায় আছে কষ্ঠে মেলে কেষ্ঠ। তাই প্রেমিকাকে নিয়ে যদি ” এই পথ যদি না শেষ হয়” গানটা গাইতে চান তাহলে সকালেই পেট্রোল ভরুন। পড়ুন আরও- বেতন কমিশনের সুপারিশও কাটাছেঁড়া করতে পারে সরকার, মমতা মন্তব্যে আশঙ্কা

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।