কলকাতা: গত কয়েকদিন ধরেই পরপর বাড়ছে তেলের দাম। ছ’দিনে তেলের দাম এতটাই বেড়েছে, যা গত দু’বছরে হয়নি বলেই জানা যাচ্ছে। ছ’দিনে পেট্রোলের দাম প্রতি লিটারে মোট ১টাকা ৫৯ পয়সা ও ডিজেলের দাম মোট ১ টাকা ৩১ পয়সা বেড়েছে বলে জানা গিয়েছে।

২০১৭ থেকে প্রত্যেক দিন তেলের দাম পরিবর্তনের নিয়ম চালু হয়েছে। রবিবার পেট্রোলের দাম প্রতি লিটারে ২৭ পয়সা বেড়েছে। দিল্লিতে পেট্রোলের দাম হয়েছে লিটার প্রতি ৭৩ টাকা ৬২ পয়সা। আর ডিজেলের দাম প্রতি লিটারে ১৮ পয়সা বেড়ে দাম হয়েছে ৬৬ টাকা ৭৪ পয়সা।

কলকাতায় রবিবার পেট্রোলের দাম ৭৬ টাকা ৩২ পয়সা হয়েছে। ডিজেলের দাম বেড়ে হয়েছে ৬৯ টাকা ১৩ পয়সা। গত দু’বছরে এভাবে পরপর ছ’দিন তেলের দাম বাড়তে দেখা যায়নি।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে এভাবেই প্রত্যেকদিন একটু একটু করে বাড়ছে তেলের দাম। মূলত সৌদি আরবে ড্রোন হামলার পর থেকেই তেলের দাম বাড়তে শুরু করেছে। তেল উৎপাদনের কেন্দ্রে ড্রোন হামলা করেছে হাউতি বিদ্রোহীরা। সেইসব কেন্দ্রে আগুন জ্বলে কয়েকদিন ধরে। তার ফলেই তেলের ভাণ্ডারে টান পড়েছে আর আন্তর্জাতিক বাজারে হু হু করে বাড়ছে তেলের দাম।

এর আগে, বাজেট প্রকাশের পরই দাম বাড়ে পেট্রল-ডিজেলের৷ রাজস্থানে একধাক্কায় লিটার প্রতি ৫ টাকা দাম বাড়ে পেট্রল-ডিজেলের৷ ৫জুলাই মধ্যরাতেই নতুন রেট প্রকাশ পায়৷ এক্সাইজ ডিউটি এবং রোড সেস এক টাকা করে বেড়েছে যার প্রভাব পড়ে জ্বালানিতে৷ এই বৃদ্ধিকে মাথায় রেখেই রাজ্য সরকার ৫ জুলাই একটি ভ্যাট রেটের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে, যা পেট্রলে ২৬ শতাংশ থেকে ৩০ শতাংশ এবং ডিজেলে ১৮ শতাংশ থেকে ২২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে৷

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যেভাবে হামলা হয়েছে তাতে তেলের মূ্ল্যবৃদ্ধি একটা স্থায়ী সমস্যা হয় উঠতে পারে। তেলের আমদানির জন্য ভারত অনেকাংশেই সৌদি আরবের উপর নির্ভরশীল। তাই ভারতেও এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে।

ইতিমধ্যেই ভারতের তৈলমন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান সৌদির মন্ত্রীর সঙ্গে এব্যাপারে কথা বলেছেন। ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম তেলের সাপ্লায়ার হল এই সৌদি আরব। সেপ্টেম্বরের জন্য ১.৩ মিলিয়ন টন ইতিমধ্যেই সৌদি থেকে ভারতে এসেছে। বাকিটাও দিয়ে দেওয়া হবে বলে সৌদির তরফে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।