পাটনা: দেশ জুড়ে বেড়ে চলা লিঞ্চিংয়ের ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছেন ৪৯ জন জন বিশিষ্ট ব্যক্তি। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন অপর্ণা সেন, কৌশিক সেন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় প্রমুখ। সেই ৪৯ জনের বিরুদ্ধেই এবার মামলার আবেদন জানানো হল বিহারের আদালতে।

শনিবার বিহার কোর্টে সেই আবেদন দাখিল করা হয়েছে। মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে এই পিটিশন দাখিল করেছেন এক আইনজীবী। ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত, দোষ দেওয়া, রাষ্ট্রদ্রোহিতার ধারায় এই মামলা করা হয়েছে।

মামলায় সাক্ষী হিসেবে কঙ্গনা রানাওয়াত, মধুর ভাণ্ডারকর, বিবেক অগ্নিহোত্রীর নাম রাখা হয়েছে। ওই ৪৯ জনের চিঠি র পাল্টা হিসেবে যে ৬১ জন মোদীর পক্ষে চিঠি দিয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যেই ছিলেন এই কঙ্গনা, বিবেক ও মধুর।

ওই আইনজীবীর অভিযোগ ৪৯ জনের ওই চিঠিতে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করা হয়েছে। একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাজকে ছোট করা হয়েছে বলেও মনে করেন তিনি। আগামী ৩ অগস্ট ওই মামলার শুনানি হবে।

গত বুধবার, ওই ৪৯ জন একাধিক সামাজিক বিষয়ে উল্লেখ করে একটি চিঠি লেখেন৷ সমস্যা সমাধানে ব্যবস্থা নিতে আর্জিও জানিয়েছেন তাঁরা৷ চিঠিতে ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর তথ্যের ভিত্তিতে বলা হয়েছে, ২০০৯ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০১৮ সালের ২৯ অক্টোবরের মধ্যে ধর্মের ভিত্তিতে ২৫৪ জনকে অপরাধী, ৯১-এর হত্যা, ৫৭৯ জন আহত হয়৷ চিঠি অনুযায়ী, ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী পদে যখন নরেন্দ্র মোদী ছিলেন তখন এমনই অপরাধের মাত্রা ছিল ৯০ শতাংশ৷

এই চিঠিতে যেমন তারকারা রয়েছেন, তেমনই রয়েছেন সমাজকর্মী, কার্ডিওলজিস্ট, লেখক, ঐতিহাসিক, সাধারণ নাগরিক, মোটা ৪৯ জন৷ চিত্র পরিচালক কেতন মেহতা, অঞ্জন দত্ত, অনুপম রায়, আদুর গোপালকৃষ্ণণ, রূপম ইসলাম, ঋদ্বি সেন, ঐতিহাসিক রামচন্দ্র গুহ, সংগীতশিল্পী শুভা মুদগল প্রমুখরা সই করেন এই চিঠিতে।

পরে অপর্ণা সেন সাংবাদিক বৈঠক করে বলেন, ‘দেশ জুড়ে কোথাও গোমাংস খাওয়ার অভিযোগ তোলা হচ্ছে, কোথাও জয় শ্রী রাম না বললে পেটানো হচ্ছে, এমনকি হত্যা পর্যন্ত করা হচ্ছে। এগুলো কী ধরনের ঘটনা?”

তিনি বলেন, ‘কেন একজন ভিন্ন ধর্মের মানুষকে জোর করে জয় শ্রী রাম বলানো হবে? আমি একজন হিন্দু, আমাকে যদি কেউ জোর করে আল্লাহু আকবর বলতে বাধ্য করে, তাহলে আমার কেমন লাগত?’

অভিনেত্রীর মতে, জয় শ্রী রাম, আল্লাহু আকবর, জয় বাংলা, জয় মা কালী কিংবা জয় মহাদেব। সবকিছুই বলার অধিকার আছে মানুষের। তবে ভালোবেসে বলানো উচিৎ, জোর করে নয়।

দেশ জুড়ে ঘটে চলা বিভিন্ন ঘটনা নিয়ে উৎকন্ঠায় আছেন বলেই ওই চিঠি দিয়েছেন বলে জানান তিনি। যথাযথ তথ্য ও পরিসংখ্যানও দিয়েছেন বলে জানান অপর্না। বিশ্বস্ত সূত্রেই সেই তথ্য পাওয়া গিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV