পোর্তো অ্যালেগ্রে: চিলির একটানা তিনবার কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্নে জল ঢালল পেরু৷ গত দু’বারের চ্যাম্পিয়নদের ছিটকে দিয়ে কোপার ফাইনালে পৌঁছে গেল তারা৷ সেমিফাইনালে চিলিকে ৩-০ গোলের বড় ব্যবধানে পরাস্ত করে পেরু৷

কোপা জমানায় কোনও দল একটানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি৷ ১৯১৬ থেকে ১৯৬৭ পর্যন্ত সাউথ আমেরিকান চ্যাম্পিয়নশিপে আর্জেন্তিনা ১৯৪৫, ৪৬ ও ৪৭ পর পর তিনবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল৷ ১৯৭৫ সালে কোপা আমেরিকা শুরু হওয়ার পর ১৯৯৭ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত পাঁচ বারের মধ্যে চার বার খেতাব জেতে ব্রাজিল৷ তবে মাঝে ২০০১ সালে উরুগুয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় হ্যাটট্রিক করার সুযোগ হয়নি ব্রাজিলের৷ সেদিক থেকে চিলির সামনে সুযোগ ছিল ইতিহাস গড়ার৷ পেরুর কাছে অপ্রত্যাশিত হারে স্বপ্ন ভঙ্গ হয় স্যাঞ্চেজ, ভিদাল, ভার্গাসদের৷

সেমিফাইনালে প্রথমার্ধে এডিনসন ফ্লোরেস ও যোশীমার য়োতানের গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায পেরু৷ দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের সংযোজিত সময়ে ব্যবধান বাড়িয়ে স্কোরলাইন ৩-০ করেন পাওলো গুয়েরেরো৷ ইনজুরি টাইমে পোনাল্টি থেকে ব্যবধান কমানোর সুযোগ পেয়েছিল চিলি৷ তবে ভার্গাসের স্পট কিক বাঁচিয়ে দেন পেরু গোলরক্ষক গালেসে৷

চিলির বিরুদ্ধে মুখোমুখি লড়াইয়ে বেশ খানিকটা পিছিয়ে পেরু৷ কোপায় দু’দলের শেষ ২০ বারের সাক্ষাতে চিলি জিতেছে ৮টি ম্যাচ৷ ড্র হয়েছে ৬টি ম্যাচ৷ পেরুর অনুকূলে নিস্পত্তি হয়েছে বাকি ৬টি ম্যাচ৷ সব টুর্নামেন্ট মিলিয়ে ৮০ বারের সম্মুখ সমরে ৪৪টি ম্যাচ জিতেছে চিলি৷ মাত্র ২২টি ম্যাচ জিততে সক্ষম হয়েছে পেরু৷ ড্র হয়েছে ১৪টি ম্যাচ৷ সুতরাং কোপার সেমিফাইনালের আগে ইতিহাস কথা বলছিল চিলির স্বপক্ষে৷ যদিও শেষমেশ ইতিহাস বদলে দেয় পেরু৷

দু’দলই কোয়ার্টার ফাইনালের অপরিবর্তিত প্রথম একাদশ নিয়ে মাঠে নামে৷ ২১ মিনিটে কারিলোর পাস থেকে গোল করে পেরুকে লিড এনে দেব এডিনসন৷ ৩৮ মিনিটে সেই কারিলোর পাস থেকেই গোল করে ব্যবধান দ্বিগুন করেন যোশীমার৷ ৫১ মিনিটে ভার্গাসের হেডার পোস্টে প্রতিহত না হলে ব্যবধান কমাতে পারত চিলি৷ ৯০+১ মিনিটে তাপিয়ার পাস থেকে পেরুর হয়ে তৃতীয় গোল করেন গুয়েরেরো৷ ৯০+৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন ভার্গাস৷

কোপার ফাইনালে আয়োজক ব্রাজিলের মুখোমুখি হবে পেরু৷ ১৯৭৫ সালে শেষবার কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠেছিল পেরু৷ সেবারই তারা শেষবার চ্যাম্পিয়ন হয়৷ তার আগে ১৯৩৯ সালে তারা প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয় সাউথ আমেরিকান চ্যাম্পিয়নশিপ৷ এই নিয়ে মোট তিনবার টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠল পেরু৷ গত দু’বার তারা ট্রফি জিততে সক্ষম হয়েছে৷ এবার কি তিনে তিন করতে পারবে পেরু? এটাই এখন ফুটবলবিশ্বের কোটা টাকার প্রশ্ন৷