পাটনা: জন বিস্ফোরণের জন্য অশিক্ষাকে দায়ী করলেন বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদী৷ অশিক্ষার কারণে হু হু করে বাড়ছে দেশের জনসংখ্যা৷ সেই সঙ্গে শিক্ষিত ও তুলনামূলক কম শিক্ষিত ব্যক্তির মধ্যে তুলনা টানতে গিয়ে জানান, যারা কম শিক্ষিত তারা অধিক সন্তানের জন্ম দিয়ে থাকেন৷ একমাত্র শিক্ষাই পারে এই জাতীয় সমস্যা থেকে মুক্তির উপায় খুঁজে বার করে দিতে৷

মঙ্গলবার বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘শিক্ষা সব সমস্যা থেকে মুক্তির চাবিকাঠি৷ যদি পরিবারের সদস্য সংখ্যা কমিয়ে আনতে চান তাহলে আগে শিক্ষিত হন৷ তখন আর ফ্যামিলি প্ল্যানিং করার দরকার পড়বে না৷’’ মুজফফরপুরে একটি অনুষ্ঠানে এসে একথা বলে সুশীল মোদী৷ তাঁর আরও সংযোজন, যারা বেশি শিক্ষিত তাদের সন্তান সংখ্যা কম হয়৷ যারা কম শিক্ষিত তাদের সন্তান অনেক বেশি হয়৷

জনসংখ্যার নিরিখে ভারত এখনও বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ৷ চিন আছে প্রথমে৷ তবে যে হারে দেশের জনসংখ্যা বাড়ছে তাতে ২০২৪ সালের মধ্যে চিনকে টপকে যাবে ভারত৷ বিশ্ব ব্যাংকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০৫০ সালের মধ্যে ভারতের জনসংখ্যা দাঁড়াবে ১.৭৩ বিলিয়ন৷ বর্তমানে দেশের জনসংখ্যা ১.৩২ বিলিয়ন৷ ২০৫০ সালে প্রবীণ নাগরিকের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে৷