স্টাফ রিপোর্টার, চুঁচুড়া: যুবককে খুনের সন্দেহে এক মাদকাসক্ত দুষ্কৃতীকে পিটিয়ে মেরে ফেলল জনতা৷ বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে চুঁচুড়ার পাঙ্খাটুলিতে৷ উত্তেজিত জনতার কাছ থেকে দেহটি উদ্ধার করতে পুলিশকে রীতিমতো বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয়৷ ঘটনার পর হুগলিঘাট স্টেশন এলাকায় মাদক বিক্রেতাদের বেশ কয়েকটি ঘরও ভাঙচুর করে জনতা৷ জোড়া খুনের ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন পাঙ্খাটুলির টি বি হাসপাতাল থেকে শেখ সমীর নামে এক যুবকের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা৷ বৃহস্পতিবার সন্ধে থেকেই সমীর নিখোঁজ ছিলেন৷ স্থানীয়দের দাবি, বৃহস্পতিবার সন্ধেয় তাঁকে শেষবার দেখা গিয়েছিল মাদকাসক্ত পটলের সঙ্গে৷ এলাকায় এলাকায় চুরি ছিনতাইয়ের অভিযোগ রয়েছে পটলের বিরুদ্ধে৷ বেশ কয়েকবার পুলিশ তাকে গ্রেপ্তারও করলেও প্রতিবারই সে জামিনে মুক্তি পেয়ে যেত৷

এদিন সকালে টি বি হাসপাতালের পরিত্যক্ত ঘরে সমীরের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা৷ পটলের সঙ্গেই তাঁকে শেষবার দেখা গিয়েছিল৷ উত্তেজিত জনতা এরপরই পটল নামে ওই দুষ্কৃতীকে পিটিয়ে মেরে ফেলে৷ খবর পেয়ে পুলিশ দেহ উদ্ধার করতে এসে রীতিমতো বাসিন্দাদের বিক্ষোভের মুখে পড়ে৷ বাসিন্দাদের অভিযোগ, এলাকার স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় হেরোইনের কারবার চলে৷ সব জেনেও পুলিশ কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না৷ এরপরই একদল বাসিন্দা স্টেশন সংলগ্ন মাদক কারবারিদের কয়েকটি ঘর ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়৷ অন্যদিকে এলাকায় মাদক কারবার বন্ধ ও দুষ্কৃতীদের গ্রেফতারের আশ্বাস দিয়ে পুলিশ জোড়া দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে৷

- Advertisement -