নয়াদিল্লি: করোনা ভাইরাসে গ্রাসে কার্যত বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। কবে মিলবে মুক্তি সেদিকেই পথ চেয়ে আছে মানুষ। আর এই কঠিন সময়ে অলৌকিক বিশ্বাস অস্বাভাবিক কিছু নয়। প্রযুক্তি আর বিজ্ঞানে উন্নত দেশগুলো ও যখন লড়াইতে হেরে যাচ্ছে, তখন সবাই হয়তো মিরাকলের জন্য অপেক্ষা করছেন। এরইমধ্যে যীশু খ্রীষ্ট কে দেখতে লকডাউন ভেঙেই ছুটলেন মানুষ।

কলম্বিয়ার এক ছোট্ট শহর এই ঘটনা ঘটেছে। গোটা বিশ্বের মতোই করো না স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে কলম্বিয়াও। চলছে লকডাউন। আর তারই মধ্যে সব বিধিনিষেধ ভুলে ছুটলেন মানুষ। কারণ গাছের গায়ে দেখা দিয়েছেন যীশু খ্রীষ্ট। এক অলৌকিক মুহূর্ত। খ্রিষ্টের কাছে প্রার্থনা করতেই ছুটে গেলেন মানুষ।

গত রবিবার রাতে ওই ছবি দেখা গিয়েছে বলে কলম্বিয়ার সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন রদলফো জামব্রানো নামে এক সাংবাদিক। তিনি জানিয়েছেন, মানুষ ওই দৃশ্য দেখতে মোমবাতি হাতে ছুটে যান। এমনকি তাদের মুখে ছিল না মাস্ক, হাতে ছিল না গ্লাভস। সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স মানেননি কেউ।

ইতিমধ্যেই প্রকাশ্যে আসে ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে বহু মানুষ গাছের তলায় জড়ো হয়েছেন। আর সেই গাছে আলোতে ফুটে উঠেছে একটি অবয়ব যা দেখতে অবিকল ক্রুশবিদ্ধ যীশু খ্রিস্টের এর মত। এই শহরের এক দোকানদার অগাস্টিনা দিয়াজ বলেন, প্রত্যেক এই পৃথিবী থেকে সব অসুখ দূর করে পৃথিবী কে সুস্থ করার প্রার্থনা করতে শুরু করেন। ভিড় সরাতে ছুটে যায় পুলিশ।

আসলে গাছটির অদ্ভুত আকারের জন্য তার গায়ে আলো পড়ে এরকম অদ্ভুত অবয়ব তৈরি হয়েছে। আর তা দেখেই মানুষ ছুটে গিয়েছেন।

২৪ মার্চ মধ্যরাত থেকেই লকডাউন জারি হয়েছে কলম্বিয়ায়। ১৯ দিন পর্যন্ত জারি থাকার কথা ছিল সেই লকডাউন। পরে তা আরও বাড়িয়ে ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়েছে। ডক্টর নিয়ম অনুযায়ী পরিবারের যে কোন একজন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনতে বেরোতে পারেন।