ঢাকা: ভাতের চেয়েও বেশি দরকার গণতন্ত্র। বাংলাদেশের মানুষ চায় না, ভোটাধিকার চায়। এমনটাই মনে করছেন বিএনপি স্থায়ী ক‌মি‌টির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান। শনিবার প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত এক সভায় তিনি বলেন, “আমি স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, দেশের গণতন্ত্রকামী মানুষকে যদি ভোট ও ভাত এই দুটি অপশন থেকে একটি বেছে নিতে বলা হয়; মানুষ বলবে আমরা ভোটের অধিকার চাই। বাংলাদেশের গণতন্ত্রকামী মানুষ ভাত নয়, ভোটের অধিকার চায়।”

আওয়ামী লিগের আমলে বাংলাদেশের মানুষ গণতন্ত্র হারিয়েছে। পাশাপাশি তিনি খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেন। তাঁর কথায়, বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক দল আর আওয়ামী লীগ একটি একনায়কতান্ত্রিক দল। দেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার নেই, স্বাধীনতা নেই। যে দেশে নির্বাচন সুষ্ঠু হয় না, সে দেশে স্বাধীনতা থাকতে পারে না।

গত জাতীয় নির্বাচনে শাসক দলের বিরুদ্ধে ভোট চুরির অভিযোগ ওঠে। আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে বলে অভিযোগ তোলেন তিনি। মঈন খানের মতে, মানুষ স্বাধীনতা ভোগ করতে পারে না, তাহলে কি কারণে স্বাধীনতার ৫০ বছর উদযাপন করবো? আজকে আমাদের একটাই চাওয়া, বাংলাদেশের মানুষকে গণতন্ত্র দিতে হবে। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার একমাত্র উপায় হল সুষ্ঠু ভোট। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট করতে হবে, অন্যথায় বাংলার স্বাধীনতাকামী মানুষ কখ‌নও আওয়ামী লীগকে ক্ষমা করবে না।

জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত “ভোটাধিকার হরণের ষড়যন্ত্রমূলক ইভিএম বাতিল ও খালেদা জিয়ার মুক্তি” শীর্ষক অনুষ্ঠানে এদিন উপস্থিত ছিলেন লায়ন মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, আব্দুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, সৈয়দ মোয়া‌জ্জেম হো‌সেন আলাল এবং আরও অনেক।