লাহোর: করোনাভাইরাসের কারণে চলতি অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে বিশ্বকাপ অনিশ্চিত৷ তবে ২০২১ ভারতের মাটিতে টি-২০ বিশ্বকাপ এবং ২০২৩ ওয়ান ডে বিশ্বকাপ হওয়ার কথা ভারতে৷ পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ভিসা পেতে কোনও অসুবিধা হবে না, বিসিসিআই-এর কাছে আইসিসি লিখিত আশ্বাস নিতে বলল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড৷

পিসিবি সিইও ওয়াসিম খান এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ‘আমরা ২০২১ এবং ২০২৩ সালে ভারতে মাটিতে আইসিসি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার বিষয়টিও দেখছি৷ ইতিমধ্যে আমরা আইসিসি-কে বিসিসিআই-এর কাছ থেকে লিখিত নিশ্চয়তা দিতে বলেছি যে, খেলোয়াড়দের ভিসা সংক্রান্ত ছাড়পত্র পেতে আমাদের কোনও সমস্যায় পড়তে হবে না।’

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের এক উর্ধ্বতন কর্তার মতে, আইসিসি-কে বিসিসিআই-এর কাছ থেকে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে তাদের সরকারের কাছ থেকে আশ্বাস নিতে বলেছে পিসিবি৷ এই কর্মকর্তা আরও জানিয়েছেন যে, আইসিসি-র কার্যনির্বাহী বোর্ড তার পরবর্তী বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেবে পরবর্তী টি-২০ বিশ্বকাপ অস্ট্রেলিয়া বা ভারত আয়োজিত হবে কিনা।

করোনা আবহের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-২০ বিশ্বকাপ আয়োজন নিয় বৃহস্পতিবারই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা আইসিসি-র৷ তবে পিসিবি সিইও ওয়াসিম খান বলেন, ‘এখন বড় প্রশ্নটি হচ্ছে ২০২১ সালে টি-২০ বিশ্বকাপ হলে সেটি কোন দেশ আয়োজন করবে, অস্ট্রেলিয়া না ভারত৷ কারণ ২০২১ সালে নির্ধারিত ওয়ার্ল্ড টি- -২০ আয়োজনের দায়িত্ব ভারতের হাতে রয়েছে৷’

তবে তিনি এও জানিয়েছেন যে, আইসিসি সদস্যরা অনুভব করেছেন ২০২১ অথবা ২০২২ সালের অক্টোবরে-নভেম্বর মাসে টি-২০ বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়া উচিত। তবে খান জানিয়েছেন যে পাকিস্তান আইসিসি ইভেন্টের জন্য ভারতে যাবে তাদের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের সুরক্ষা সম্পর্কে সম্পূর্ণ আশ্বাস পাওয়ার পরে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।