নয়াদিল্লিঃ  প্রায় কয়েক বছর হয়ে গিয়েছে নিজেদের পেমেন্টস ব্যাংক নিয়ে এসেছে পে-টিএম। এবার পেমেন্টস ব্যাংককে আরও মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে চায় পেটিএম। আর সেজন্যে আরও কর্মী নিয়োগের সিদ্ধান্ত পেটিএমের। বেশ কিছু ক্ষেত্রে এই কর্মী নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়েছে।

বছরখানেক আগে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ, এয়ারটেল এম কমার্স সার্ভিসেস, ভোডাফোন এম-পেসা, টেক মহিন্দ্রা, আদিত্য বিড়লা ন্যুভো সহ দেশের মোট ১১টি সংস্থাকে পেমেন্টস ব্যাংক খোলার ছাড়পত্র দেয় কেন্দ্রীয় রিজার্ভ ব্যাংক। যার মধ্যে রয়েছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আর্থিক লেনদেনের সংস্থা পে-টিএমও। এরপরেই প্রায় কয়েক হাজার কর্মী নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয় পেটিএম। সেই মতো প্রায় তিন হাজার কর্মী নেওয়াও হয়। এবার ফের একবার কর্মী নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিল পেটিএম। একাধিক পদের জন্যে এই কর্মী নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। বিভিন্ন এজেন্সির মাধ্যমে এই কর্মী নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত পেমেন্টস ব্যাংক তৈরির মূল লক্ষ্য, ব্যাংকিং পরিষেবার সুবিধা দেশের প্রত্যন্ত প্রান্তেও সকলের দরজায় পৌঁছে দেওয়া। যাতে সেখানে অন্তত তুলনায় ছোট অঙ্কের আমানত জমা করা যায়। ফলে গ্রাহকদের এটিএম বা ডেবিট কার্ড ইস্যু করতে পারবে তারা। এই ব্যাংকের মাধ্যমে এক জায়গা থেকে আর এক জায়গায় টাকা পাঠাতে পারবেন সাধারণ মানুষ।

এখান থেকে বিক্রি করা যাবে কম ঝুঁকির মিউচুয়াল ফান্ড এবং বিমা প্রকল্পও। ছোট ব্যবসায়ী, অসংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মীরা এই ব্যাংকের পরিষেবায় উপকৃত হবেন বলে শীর্ষ ব্যাংকের দাবি। শুধু তা-ই নয়। পেমেন্টস ব্যাংক মারফত অনলাইনে কর দেওয়া থেকে শুরু করে ই-কমার্সের বিভিন্ন লেনদেনে টাকা মেটানোর পরিষেবা মিলবে।