প্যারিস: ফ্রান্সকে বিশ্বকাপ এনে দেওয়া পল পোগবার বুট বিক্রি হল বিশাল অঙ্কে৷ ফ্রান্সের স্কুল ছাত্রদের সাহায্যার্থে একটি স্বেচ্ছ্বাসেবী সংস্থাকে বিশ্বকাপের বুট ছাড়াও বেশ কয়েকটি জার্সি দান করেন পোগবা৷ যেগুলি বিক্রি করে অর্থ সংগ্রহ করা হয়ে৷

আরও পড়ুন: পয়েন্ট টেবিলের ১৯ নম্বরের কাছেও লজ্জার হার রিয়াল মাদ্রিদের

প্যারিসের ক্রিশ্চি নিলাম কেন্দ্রে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড তারকার ব্যবহৃত কিটসগুলি লিলামে তোলা হয়৷ বিশ্বকাপ ফাইনালে যে বুট পরে ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে গোল করেছিলেন পোগবা, সেটি বিক্রি হয় ৩০ হাজার ইউরোয়৷ অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ২৩ লক্ষ টাকায় বিক্রি হয়ে যায় পোবগার বিশ্বকাপ ফাইনালের বুট৷ নিলামকারী সংস্থা অবশ্য আরও একটু বেশি দাম প্রত্যাশা করেছিল৷ তাদের ধারণা ছিল ৩৫ থেকে ৫০ হাজার ইউরোয় বিকোবে বুটজোড়া৷

এছাড়া ২০১৬ ইউরো কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে আইসল্যান্ডের বিরুদ্ধে ফ্রান্সের যে জার্সিটি পরে মাঠে নেমেছিলেন পোগবা, সেটি বিক্রি হয় ৪ হাজার ইউরো বা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩ লক্ষ ১২ হাজার টাকায়৷ ২০১৭ সালে বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বে হল্যান্ডের বিরুদ্ধে পোগবার জাতীয় দলের জার্সিটি বিক্রি হয় ৩ হাজার ইউরো বা প্রায় ২ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকায়৷

আরও পড়ুন: বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিতলেন লিভারপুল তারকা

২০১৭ সালে ওয়েস্ট হ্যামের বিরুদ্ধে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের যে জার্সিটি পরে খেলেছিলেন পোগবা, সেটি বিক্রি হয় মাত্র ৪০০ ইউরো বা প্রায় ৩২ হাজার টাকায়৷ পোগবার বেশ কয়েকটি জার্সি নিলামে অবিক্রিত থেকে যায়৷ যার মধ্যে ২০১৫ সালে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জুভেন্তাসের জয় তুলে নেওয়া জার্সিটিও ছিল৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.