প্যারিস: সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে সুইডেনের বিরুদ্ধে মুখোমুখি হওয়ার আগে ফ্রান্স শিবিরে বড় ধাক্কা। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন বিশ্বজয়ী ফরাসি মিডফিল্ডার পল পোগবা। মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে স্বাভাবিকভাবেই আগামী ৬ এবং ৯ সেপ্টেম্বর সুইডেন এবং ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে দিদিয়ের দেশঁর ঘোষিত স্কোয়াড থেকে বাদ গেলেন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড তারকা।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলনে ফ্রান্সের কোচ জানান, ‘শেষ মুহূর্তে এসে আমাদের স্কোয়াডে রদবদল করতে হয়েছে। আমার তৈরি স্কোয়াডে পোগবার নাম ছিল। কিন্তু গতকাল তাঁর যে কোভিড পরীক্ষা হয়েছিল, দুর্ভাগ্যবশত তার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তাই শেষ মুহূর্তে এসে আমাকে বদলি হিসেবে এডুয়ার্ডো ক্যামাভিঙ্গাকে নিয়ে আসতে হয়েছে।’ দেশঁর স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন টটেনহ্যাম হটস্পার মিডফিল্ডার তাঙ্গুই এনদোম্বেলে।

এদিকে করোনা আক্রান্ত হয়ে আগামী ১৪ দিন আইসোলেশনে থাকতে হবে ম্যান ইউ মিডফিল্ডারকে। উয়েফা নেশনস লিগের প্রথম দুই ম্যাচের পাশাপাশি ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে আসন্ন মরশুমের প্রি-সিজন ক্যাম্পের শুরুতেও থাকতে পারবেন না পোগবা। যা আগামী সপ্তাহেই শুরু হয়ে যাচ্ছে। যদিও ক্রিস্টাল প্যালেসের বিরুদ্ধে আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর মরশুমের প্রথম ম্যাচে পোগবাকে পেতে কোনও অসুবিধা থাকবে না ম্যান ইউ’য়ের।

দলের তরফ জানানো হয়েছে উপসর্গহীন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন পল পোগবা। কোনও উপায়ান্তর না দেখে দলের অন্যতম চালিকাশক্তিকে দলের বাইরে রেখেই নেশনস লিগের জন্য দল ঘোষণা করতে হয় দেশঁকে। পোগবা এবং দেম্বেলের অনুপস্থিতিতে নেশনস লিগে রেনে মিডফিল্ডার ক্যামাভিঙ্গার কাছে নিজেকে প্রমাণের সুযোগ। এছাড়াও দলবদলের মরশুমে রিয়াল মাদ্রিদের নজরে থাকা লিয়ঁ মিডফিল্ডার হৌসেম আউয়ার প্রথমবারের জন্য ডাক পেলেন জাতীয় দলে।

ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের তরফ থেকেও এক বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে পোগবার শারীরীক অবস্থা নিয়ে। ম্যাঞ্চেস্টারের ক্লাবটি জানিয়েছে, ‘পল কোভিড১৯ পজিটিভ হওয়ায় ফ্রান্সের নেশনস লিগ স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন। ইউনাইটেডের সকলে তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করছে।’

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.