পাটনা: শনিবার সন্ধ্যায় হঠাৎ করেই পাটনায় তাজ্জব কাণ্ড। আকাশ থেকে পড়তে দেখা যায় সব কালো কালো ছাই। ঘটনা দেখে তাজ্জব হয়ে যান সকলে। আর এ যে মিথ্যে নয়, তা প্রমাণ করতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিও শেয়ার করা শুরু হয়।

সকলেরই প্রশ্ন একটাই কোথা থেকে আসছে এত ছাই? কেউ বলছেন এটা হতে পারে পাখির অবশেষ, আবার কারো বক্তব্য এগুলি আসলে পোড়া খড়। সোশ্যাল মিডিয়া এই আলোচনাতেই একেবারে সরগরম-আসলে কী ওই ছাই?

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, প্রতি বছর এই সময়ে নদীর তীরে ফসল অনেক বেশি হয়। কৃষকেরা যাতে তাঁদের জমিতে আবার চাষ করতে পারেন, তাই তাঁরা জমিতে অবশিষ্টাংশ পুড়িয়ে ফেলেন।

অন্যদিকে এই সময় খুব জোরে হাওয়া হয়। মনে করা হচ্ছে সেই ছাইই হাওয়ায় উড়ে গিয়েছে এবং বাতাসের জোর থাকায় তা গিয়ে পড়েছে অনেক দূর এলাকাতেও।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন এই ছাইয়ের কণা চোখের ক্ষতি করতে পারে। এরফলে চোখে অ্যালার্জি হতে পারে। এই ছাই যদি চোখে পড়ে তবে আরও নানান সমস্যা হতে পারে। তবে উপায় কী? চিকিৎসকেরা জানাচ্ছেন, পোড়া ছাইয়ের কণা যদি চোখে পড়ে তবে তা ঘষবেন না, পরিষ্কার জল দিয়ে চোখ ধুয়ে ফেলতে হবে ও চোখে জলের ঝাপটা দিতে হবে।

তবে অন্যদিকে এই ছাই বাতাসে ওড়ার ফলে পরিবেশও দূষিত হয়। এরফলে বায়ুদূষণ ঘটে। বাতাসে ছাইয়ের কণা ভাসমান অবস্থায় থাকার দরুণ শ্বাসকষ্টও হতে পারে।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।