স্টাফ রিপোর্টার, বারুইপুর: চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর জখম হলেন এক যুবক৷ আহত যুবকের নাম লাল্টু বিশ্বাস (৩৫)৷ সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখার তালদি ও ক্যানিং স্টেশনের মাঝে চাঁদখালী হল্ট স্টেশনের কাছে৷

গুরুতর জখম অবস্থায় ওই যুবককে স্থানীয়রা উদ্ধার করেন৷ তাঁরাই ওই যুবককে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যান৷ সেখানেই ওই যুবকের প্রাথমিক চিকিৎসা হয়৷ পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ওই যুবককে পাঠিয়ে দেওয়া হয় কলকাতায়৷

আরও পড়ুন: পঞ্চায়েতের আগে নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করতে প্রশাসনিক বৈঠক

রেল পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পেশায় কাঠের মিস্ত্রী লাল্টু জীবনতলা থানার ঘুঁটিয়ারি শরীফের পথের শেষ গ্রামের বাসিন্দা৷ সোমবার সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ তিনি ঘুঁটিয়ারি শরীফ স্টেশন থেকে ডাউন ক্যানিং লোকালে ওঠেন৷ তিনি ক্যানিংয়ে আসছিলেন৷ কিন্তু ট্রেনে ভিড় থাকায় ভিড় থাকায় ভিতরে ঢুকতে পারেননি৷ চাঁদখালী হল্ট স্টেশনে বাঁশ বেঁধে কাজ করছিলেন শ্রমিকরা। সেই বাঁশের সাথে ধাক্কা খেয়েই চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে যান ওই যুবক৷

আরও পড়ুন: তোলা না দিলে ঠিকাদারকে প্রাণে মারার হুমকি

অন্যদিকে সোমবার এক প্রৌঢ়ার মৃতদেহ উদ্ধার হয় দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ড হারবারের নবাসন এলাকায়৷ দুপুরে স্থানীয় মাঠের মাঝখানে একটি পানা পুকুরে ওই প্রৌঢ়ার মৃতদেহ ভেসে উঠতে দেখেন স্থানীয় মানুষজন৷ তারাই ডায়মন্ড হারবার থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে৷ পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদেহের শরীরে জামা কাপড় ছিল না৷

পুকুর থেকে প্রায় একশো মিটার দুরে মাঠের মাঝে কিছু ছেঁড়া জামাকাপড় উদ্ধার করেছে পুলিশ৷ সেগুলি মৃতার বলেই প্রাথমিকভাবে অনুমান পুলিশের৷ পুলিশের ধারণা, এটি খুনের ঘটনা৷ প্রমাণ লোপাটের জন্য ওই মহিলার জামা কাপড় খুলে অন্যত্র ফেলে দেওয়া হয়৷ ডায়মন্ড হারবার থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে৷ তারা মৃতার পরিচয় জানার চেষ্টা করছে৷

আরও পড়ুন: ই-রিক্সার রেজিস্ট্রেশন দেওয়া শুরু করল পুরসভা