কলকাতা: রেশন দুর্নীতি নিয়ে এবার পাল্টা সমালোচনার পথে তৃণমূল৷ উল্টে বিজেপিকেই কাঠগড়ায় তুললেন তৃণমূলের মহাসচিব৷ কেন্দ্রের পাঠানো রেশন বিজেপির কার্যালয়ে এনে জড়ো করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করলেন পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়। করোনা মোকাবিলার বদলে বিজেপি রাজ্য সরকারকে অপদস্থ করা চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

লকডাউন চলাকালীন রাজ্যের একাধিক এলাকায় রেশন-দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। বিভিন্ন এলাকায় রেশনের দাবিতে বিক্ষোভ দেখান উপভোক্তারা। কোথাও-কোথাও রেশন ডিলারের বাড়ি ঘিরে চলে বিক্ষোভ-ভাঙচুর। দিন কয়েক আগেই মুর্শিদাবাদের সালারে রেশনে কম ওজনের সামগ্রী দেওয়ার অভিযোগ ঘিরে তুলকালাম কাণ্ড ঘটে।

রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় রেশন দুর্নীতিতে তৃণমূলের স্থানীয় নেতাদেরই দায়ী করে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। রাজনৈতিক ক্ষমতা ব্যবহার করে বহু জায়গায় রেশনের চাল,ডাল তৃণমূল নেতারা নিজেদের উদ্যোগে অন্যত্র সরাচ্ছেন বলেও অভিযোগ তোলে বাম, বিজেপি নেতৃত্ব।

এমনকী এবিষয়ে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করে অভিযোগ জানিয়ে এসেছে বামেরা। দিন কয়েক আগেই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রেশন দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতেও আবেদন জানান।

এবার সেই রেশন দুর্নীতি নিয়ে উল্টে বিজেপিকেই কাঠগড়ায় তুলল তৃণমূল। দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়ের দাবি, ‘কেন্দ্রীয় সরকার যে রেশন পাঠাচ্ছে তা বহু জায়গায় বিজেপির কার্যালয়ে গিয়ে জমা হচ্ছে।’ এমনকী রেশন দুর্নীতি নিয়ে রাজ্যপাল যে অভিযোগ করেছেন তার কোনো ভিত্তি নেই বলেও অভিযোগ তৃণমূলের।

এরই পাশাপাশি রাজ্যপালের ভূমিকারও কড়া সমালোচনা করেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান হয়েও ক্রমাগত রাজ্য সরকারের সঙ্গে রাজ্যপাল অসহযোগিতা করে চলেছেন বলে অভিযোগ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। জগদীপ ধনখড়কে দুষে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘নিজের পদের প্রতি অসম্মান করছেন রাজ্যপাল। রাজ্যপাল গুজরাত নিয়ে কিছু বলেন না। ক্রমাগত বাংলার সরকারের সমালোচনা করে চলেছেন। রাজ্যপাল তাঁর কাজে পুরোপুরি ব্যর্থ।’

তৃণমূল নেতা তথা রাজ্য়ের মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি রাজ্যজুড়ে পর্যাপ্ত রেশন বণ্টন করা হচ্ছে। এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘রেশন নিয়ে রাজ্যে কোথাও কোনও অভিযোগ নেই। সবাই পর্যাপ্ত রেশন পাচ্ছেন।’

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও