স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: বাজের চাঙর ভেঙে পড়ে আহত হল এক ক্রেতা৷ ঘটনাটি ঘটছে কোচবিহার ভবানীগঞ্জ বাজারে৷ ঘটনার পর চাঞ্চল্য ছড়ায় বাজারটিতে৷ উত্তেজিত ব্যবসায়ীরা ওই আহত ক্রেতাকে নিয়ে পথ অবরোধ করে৷

ব্যবসায়ীদের দাবি, দীর্ঘ দিন থেকে বাজারের অবস্থা বেহাল ছিল৷ কিন্তু তা সারাইয়ের কোনও ব্যবস্থাই নিচ্ছিল না পুরসভা। দ্রুত এই বাজার সংস্কারের দাবি করেছেন তাঁরা। এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে অবরোধ চলার পর পুরপিতার আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় ব্যবসায়ীরা।

দীর্ঘদিন থেকেই অবহেলায় পরে রয়েছে কোচবিহারের সবচেয়ে বড় বাজার ভবানীগঞ্জের এই বাজার। বাজারে বিল্ডিং-এর অবস্থা খুবই খারাপ৷ যখন তখন বাজারের কংক্রিটের চাঙ্গর ভেঙ্গে পরছে।

এর আগেও একাধিক বার চাঙ্গর ভেঙে পড়ায় অনেকেই আহত হয়েছেন৷ ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে অনেক বার পুরসভা ও প্রশাসনের কাছে বাজার সংস্কারের দাবি করা হয়েছিল৷ কিন্তু তাতেও কোনও সুরাহা হয়নি ব্যবসায়ীদের৷

মঙ্গলবার সকালে ভবানীগঞ্জে বাজার করতে আসেন কোচবিহারের টাকাগাছ এলাকার বাসিন্দা হাবিবুর হক৷ সেই সময় উপর থেকে তাঁর মাথায় ভেঙ্গে পরে কংক্রিটের চাঙ্গর৷ গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে কোচবিহার এমজেএন হাসপাতালে নিয়ে যান ব্যবসায়ীরা।

তাঁর মাথায় চারটি সেলাই পরেছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে। এরপরেই ব্যবসায়ীরা আহত ওই ব্যাক্তিকে নিয়ে বাজারের সামনের রাস্তায় পথ অবরোধ শুরু করেন।

বাজারের ব্যাবসায়ী পান্নালাল বানিয়ার অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে খারাপ অবস্থার মধ্যে রয়েছে এই বাজার৷ বারে বারে বলা সত্বেও পুরসভা বাজার সংস্কারের কোন ব্যবস্থাই নিচ্ছেনা৷ এর আগেও অনেক দুর্ঘটনা ঘটেছে৷ যে কোন সময় যে কারোর মৃত্যুও হতে পারে এই বাজারে।

এক ঘণ্টার বেশি অবোরোধ চলার পর কোচবিহার পুরসভার চেয়ারম্যান ভূষণ সিং বাজারে আসেন৷ তাঁর আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেন ব্যবসায়ীরা। এদিন ভূষন সিং বলেন, ‘‘বাজারটি বেশ পুরনো৷ তাই এরকম দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে৷ আমরা পুরসভার কর্মচারি ও ইঞ্জিনিয়ারদের পাঠিয়েছি৷ এছাড়াও আজই বাজারের ব্যবসায়ীদের প্রতিনিধি ও পুরসভার প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে৷ যারা এই বিষয়টি দেখভাল করবে৷’’