প্যারিস: নোতর দামে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের পর কেটে গিয়েছে তিনটে মাস। এপ্রিলে নোতর দামের গির্জায় বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডের পরে উচ্চ মাত্রায় সীসা নির্গত হয়ে চলেছিল অবিরাম। যা এখনও নির্গত হয়েই চলেছে। ফলে আতঙ্কে ভুগছেন প্যারিসের সিটি হল কর্তৃপক্ষ। যার কারণেই ভয়ানক এই দুর্যোগে স্থানীয় মানুষদের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে, বিশেষ করে শিশুদের কথা ভেবেই প্যারিসের সিটি হল কর্তৃপক্ষ বৃহস্পতিবার বন্ধ করে দিল গির্জা সংলগ্ন দুটি স্কুল।

গত সপ্তাহেই কর্তৃপক্ষ জোর দিয়ে বলেছিল আগুন থেকে সৃষ্ট দূষণের ফলে জনগণ ক্ষতিগ্রস্থ হবেন না। কিন্তু তখনই প্যারিসের পরিবেশ রক্ষাকারী সংগঠনগুলি সতর্ক করেছিল তাদের। এবার পরিস্থিতি বেগতিক দেখে স্থানীয় মানুষদের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে, বিশেষ করে শিশুদের কথা ভেবেই প্যারিসের সিটি হল কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ঐতিহাসিক গীর্জায় আগুন লেগে গীর্জার ছাদে মজুত ৩০০ টন সীসা দাউদাউ করে জ্বলে উঠেছিল। নোতর দাম ক্যাথিড্রাল গির্জার সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে ফ্রান্সের বহু ঐতিহ্য। ১৮৩১ সালে বিখ্যাত ফরাসি ঔপন্যাসিক ভিক্টর হুগো তার উপন্যাস ‘হঞ্চাব্যাক অব নতরদাম’-এ এই গীর্জার কথা উল্লেখ করেন। গীর্জার বয়স প্রায় ৬৬৮ বছর। গীর্জা সংরক্ষণের জন্যই কাজ শুরু হয় গীর্জায়। কাজ চলাকালীনই আগুনের গ্রাসে চলে যায় এই গীর্জা। ফ্রান্সের ঐতিহ্যমন্ডিত এই গীর্জাটির মাথা পর্যন্ত পৌঁছে যায় আগুন। দমকলের ৪০০টি ইঞ্জিনের চেষ্টায় আগুন কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়। আগুন লাগান আসল কারণ এখনও পর্যন্ত জানা না গেলেও ভয়াবহ আগুনের গ্রাস থেকে নোতর দামের গির্জার মূল কাঠামো বাঁচানো সম্ভব হয়।

সম্প্রতি এই বিষয়ে একটি রিপোর্ট পেশ করেছে প্যারিসের একটি সংবাদ মাধ্যম। তাদের রিপোর্ট অনুযায়ী, এই ঘটনায় স্থানীয় এলাকায় দূষণের মাত্রা অতিক্রম করে গিয়েছে। ফ্রান্সের তদন্তকারী ওয়েব সাইট মিডিয়াপার্ট জানিয়েছে, গির্জা থেকে বিপুল পরিমাণে সীসা নির্গত হয়ে স্থানীয় স্কুলগুলিতে পড়ছে।

সেই কারণে সিটি হল কর্তৃপক্ষ নার্সারি এবং প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। এদিন সিটি হল কর্তৃপক্ষ এএফপি নামে এক সংবাদ মাধ্যমকে জানায়, “স্কুলগুলির খেলার মাঠে বিপুল পরিমাণে সীসা এসে পড়ছে। গত সপ্তাহেই গির্জা লাগোয়া স্কুলগুলিতে ‘স্বচ্ছতা কর্মসূচি’ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে সিটি হল কর্তৃপক্ষ। তাই ‘সতর্কতামূলক ব্যবস্থা’ হিসাবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।”

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।