চণ্ডীগড়: সম্প্রতি শিশু পুত্র ও কন্যার মধ্যে সামঞ্জস্য আনতে ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ প্রকল্প এনেছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। যার ক্যাম্পেনিং হতে চলেছে হরিয়ানায়। জল্পনা উঠেছে, বেটি ‘বাঁচাও বেটি পড়াও’ প্রকল্পে হরিনায়ার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসাবে বলিউডি নায়িকা পরিনীতি চোপড়াকে বেছে নিয়েছে বিজেপি সরকার। আর তার জন্য মোটাসোটা টাকাও পাচ্ছেন নায়িকা। তবে গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়ে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাট্টার জানালেন, “পরিনীতি কেন, কোনও নায়িকার সঙ্গেই এই বিষয়ে কথা হয়নি তাঁদের৷ কোনও রকম টাকার লেনদেনও হয়নি। এমনকি তাঁদের মধ্যে থেকে কাউকে ব্রান্ড অ্যাম্বাসাডর করারও কোনও পরিকল্পনাও নেই এখন৷”

এই প্রসঙ্গে খাট্টার আরও বলেন, “এই প্রকল্পের সঙ্গে থাকতে চান পরিনীতি। সে কারণে মোদী সরকারকে অনুরোধও করেছেন তিনি। তবে এর সঙ্গে টাকার কোন সম্পর্ক নেই।” কিছুদিন আগে কেন্দ্রীয় সরকারের এক কর্তা ব্যক্তি জানিয়েছিলেন, ” এবার আম্বালায় ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ ক্যাম্পেনিংয়ে থাকবেন পরিণীতি”। এই ঘোষণা নিয়ে মাথা চড়া দিয়েছে জল্পনা।

বিনোদনের আরও খবর:

১. ‘ক্যাপ্টেন কুল’-এর স্ত্রী হচ্ছেন পরিণীতি!!

২. ফ্যানদের সঙ্গে কথা বলতে চান পরিণীতি

৩. পরিণীতির হৃদয় ভাঙার গল্প

ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, পরিনীতির জন্ম হরিয়ানায়। আর এই হরিয়ানায় সব থেকে বেশি হারে হত্যা করা হয় কন্যাভ্রূণ। এমনকি এই রাজ্যে সবথেকে বেশি যৌন নির্যাতনের শিকার হতে হয় নাবালিকাদের। তাই নিজের মাতৃভূমিকে কলঙ্ক মুক্ত করতে এই ক্যাম্পেনিংয়ে অংশ নিতে চান পরিণীতি।11755870_506317229525762_7263072726416939394_n

যদিও সম্প্রতি নিজের ফেসবুক পেজে পরিণীতি লিখেছেন, ” হরিয়ানা থেকে ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’প্রকল্পে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হতে পেরে খুব সম্মানীত বোধ করছি”। একই সঙ্গে তিনি একটি ছবিও পোস্ট করেছেন ক্যাম্পেনিংয়ের।

এখন খাট্টার নাকি পরিনীতি কার কথা সত্যি তা নিয়ে ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে জলঘোলা।